• রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন |

সৈয়দপুরে ব্যবসায়ী অপহরণ: ৬ ঘন্টা পর উদ্ধার

Opoসিসি নিউজ: নীলফামারীর সৈয়দপুরে এক ব্যবসায়ী বুধবার দুপুরে অপহরণ হয়েছে। অপহরণকারীরা তার মুক্তিপণের টাকার একটি অংশ পেয়ে অপহরণের ৬ ঘন্টা পর ছেড়ে দেয়। প্রকাশ্য দিবালোকে এ অপহরণের ঘটনায় গোটা সৈয়দপুরের ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

সূত্র মতে, দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকেরহাট বাজারের রড-সিমেন্ট ব্যবসায়ী আলতাফ হোসেন (৩০) ব্যবসায়িক কাজে নীলফামারী সড়ক হয়ে সৈয়দপুরে আসতে ছিলেন। দুপুর ১২টার দিকে শহরের অদূরে ওয়াপদা মোড়ে এলে দু’জন ছিনতাইকারী পথচারীর ছদ্মবেশে তার গতিরোধ করে। ছিনতাইকারীরা ব্যস্ততার সাথে তাকে আকুতি জানায়, তাদের বড় ধরনের একটা ক্ষতি করে মটরসাইকেল যোগে দু’জন লোক সামনে যাচ্ছে, তাদেরকে ধরার জন্য সাহায্য চাই। এমন কথা বলতে বলতে ব্যবসায়ীর ব্যবহৃত বাজাজ মটরসাইকেলের পিছনে একজন বসে এবং অপরজন ব্যবসায়ীকে পেছনে বসিয়ে নিজেই মটর সাইকেলেটি চালিয়ে বাইপাস সড়ক হয়ে টার্মিনালের দিকে যেতে থাকে। অপহৃত ব্যবসায়ী আলতাফ জানায়, এরপর খাদিজা ফিলিং স্টেশন পার হতেই পিছনে বসে থাকা ছিনতাইকারী তার (ব্যবসায়ীর) কোমরে পিস্তল ঠেকিয়ে চিৎকার না করার জন্য হুশিয়ার করে দেয়। এরপর সৈয়দপুর টার্মিনালের কাছে গিয়ে চোখ বেঁধে একটি পরিত্যক্ত গোডাউন ঘরে নিয়ে যায়। এরপর অপহৃত ব্যবসায়ী আলতাফের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ০১৭১৩৯৩৭৪২৬ থেকে তার পরিবারের কাছে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

অপহৃত ব্যবসায়ীর মামা খানসামা উপজেলার ছিট আলোকডিহি গ্রামের সবুজ জানায়, ওই সময় অপহরণকারীরা অপহৃত ভাগিনার নম্বরে ২৫ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে পাঠাতে বলে। বাকি ৭৫ হাজার টাকা ০১৭৯২২২৫৯৯৪ নম্বরে বিকাশ করতে বলেন। তিনি বিষয়টি সৈয়দপুর থানাকে অবহিত করেন। সবুজ সিসি নিউজকে জানান, এ  সময় টাকা দিতে দেরি করায় অপহরণকারীরা অপহৃত আলতাফকে বেদম প্রহার করে এবং তা ০১৭৭৪৩১৬৭৪৭ নম্বর মোবাইল ফোন থেকে আমার মোবাইলে কল দিয়ে শোনানো হয়। সেসময় ওই নম্বর থেকে জানানো হয়  টাকা দেয়া না হলে তাকে খুন করা হবে। ভয়ে তাৎক্ষনিক আলতাফের নম্বরে ১০ হাজার টাকা বিকাশ করা হয়। কিন্তু পরবর্তীতে টাকা পাঠাতে দেরী হবে জানালে সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে অপহরণকারীরা সৈয়দপুর শহরের চামড়া গুদামের কাছে তাহিয়া বাজাজ মটর সাইকেল শোরুমের পিছনে গুরুতর অসুস্থ্য অবস্থায় অপহৃত ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দেয়। অপহরণকারীরা ব্যবসায়ীর পকেটে থাকা ২৬ হাজার টাকা ও মোবাইল ফোনটি কেড়ে নিলেও মটরসাইকেলটি তার সাথে ফেলে রেখে যায়।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সহিদার রহমান সিসি নিউজকে জানান, মৌখিক ভাবে অভিযোগ পেয়ে একজন এসআইকে দায়িত্ব দিয়েছি। তিনি জানান, অপহরণকারীরা ৭৫ হাজার টাকার জন্য যে বিকাশ নম্বর দিয়েছে সেটি সৈয়দপুর শহরের সিনেমা রোডের একটি বিকাশ এজেন্টের নম্বর। তিনি বলেন, খুব দ্রুত আসল ঘটনাটি উৎঘাটন হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ