• মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ০২:৪৭ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :

চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জনের কান্ড!

111সিসি নিউজ: খুলনা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জন ডা. খন্দকার মিজানুর রহমানকে (৫৩) অ্যাডভোকেট সাবিনা ইয়াসমিন নামে এক নারীসহ আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে খুলনার কেডিএ অ্যাভিনিউয়ের বাংলাদেশ ব্যাংক কোয়ার্টারের বিপরীত দিকের একটি ফ্ল্যাট থেকে তাদের আটক করা হয়।

খুলনা মহানগর ডিবি পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. জিয়াউদ্দিন আহমেদ জানান, চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জন ডা. খন্দকার মিজানুর রহমান প্রায়ই অ্যাডভোকেট সাবিনা ইয়াসমিনের খুলনার ওই ফ্ল্যাটে আসা-যাওয়া করতেন। বেশ কিছুদিন ধরে তার ওপর গোয়েন্দা নজরদারি রাখা হচ্ছিল।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা থেকে ট্রেনে করে খুলনা এসে ওই বাসায় ওঠেন তিনি।

পরে রাতে পুলিশ ওই বাসায় অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডা. খন্দকার মিজানুর রহমান বাথরুমে আত্মগোপন করেন। পরে বাথরুমের দরজা ভেঙে লুঙি পরিহিত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

এ সময় পুলিশি জেরায় তারা সম্পর্কে পরস্পর নানা-নাতনি বলে পরিচয় দেয়।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক তৈমুর ইসলাম জানান, আটকদের শুক্রবার আদালতে হাজির করা হবে।

এদিকে, স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সিভিল সার্জন ডা. খন্দকার মিজানুর রহমান মাঝে-মধ্যেই খুলনায় অ্যাডভোকেট সাবিনার বাসায় আসা-যাওয়া এবং সেখানে রাত্রি যাপন করতেন।

এদিকে, চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান ডা. মিজানুর রহমানের নারী কেলেঙ্কারির খবরে চুয়াডাঙ্গায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্বাস্থ্য বিভাগের একাধিক কর্মকর্তা জানান, ডা. মিজানুর রহমান সরকারি দায়িত্বে থাকার পরও কোনো ছুটি না নিয়ে প্রায়ই অফিসের কাজের কথা বলে খুলনায় থাকতেন

উৎসঃ   টাইমনিউজবিডি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ