• শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০১:২৫ পূর্বাহ্ন |

ডিমলায় ধর্ষিতা গৃহবধু নিখোঁজ!

dorsonডিমলা(নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর ডিমলায় ধর্ষনের শিকার এক অসহায় গৃহবধুকে মামলা করার জন্য থানায় যেতে দিচ্ছে না ধর্ষক পরে একটি প্রভাবশালী মহল। ঘটনাটি নিরসনের নামে ধর্ষিতাকে ৩দিন ধরে আটক করে রাখা হয়েছে।
জানাগেছে, ডিমলা উপজেলার খগাখড়িবাড়ী গ্রামের মজিবর রহমানের পুত্র ফয়জার রহমান(৩৫) অসৎ উদ্দেশ্যে একই উপজেলার পাশ্ববর্তী উত্তর তিতপাড়া গ্রামের বাক প্রতিবন্ধি তইজুল ইসলাম ওরফে তহিদুল ইসলামের স্ত্রী মুক্তা বেগম(৩০)এর সাথে আত্মীয়তার (কথিত ধর্মের ভাই-বোন) সর্ম্পক গড়ে তুলে মাঝে মধ্যেই তার বাড়ীতে আসা-যাওয়া করতো। এমতাবস্থায় গত বুধবার রাতে ফয়জার রহমান মুক্তা বেগমের বাড়ীতে যায়। এসময় মুক্তা বেগমের স্বামী বাড়ীতে ছিলো না। এ সুযোগে ফয়জার রহমান নানা ভয়ভীতি প্রর্দশন করে মুক্তা বেগমের মুখ বেঁধে তাকে ধর্ষন করে। এক পর্যায়ে মুক্তা বেগম মুখের বাঁধ খুলে চিৎকার দিলে প্রতিবেশী লোকজন দৌঁড়ে এসে ফয়জারকে আটক করে। এখবর পেয়ে ফয়জারের লোকজন তাকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এব্যাপারে গৃহবধু মুক্তা বেগম থানায় মামলা করতে চাইলে ধর্ষক ফজলার পরে প্রভাবশালী একটি মহল ধর্ষিতাকে মামলা করার জন্য থানায় যেতে দিচ্ছে না। ঘটনাটি মিমাংশার নামে গত ৩দিন ধরে ধর্ষিতাকে তার বাড়ীতে আটক রেখে ধর্ষনের আলামত নষ্টের পায়তা করছে। তবে শুক্রবার সন্ধায় ধর্ষিতা সুযোগ পেয়ে থানায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে উপজেলার জোরজিগা বাজারে গিয়ে রিক্সা-ভ্যানে ওঠার চেষ্টাকালে ধর্ষক ফজলারের লোকজন বাঁধা দেয়। এক পর্যায়ে ধর্ষিতা নিরুপায় হয়ে  একটি মুদি দোকানে আশ্রয় নিয়ে উপস্থিত লোকজনের কাছে থানায় মামলা করার ব্যাপারে সহযোগীতা চেয়ে ব্যার্থ হয়। শনিবার শেষে খবর পাওয়া পর্যন্ত পুঁজি করে আব্দুল কাদের নামে এক প্রভাবশালী ব্যক্তির নেতৃত্বে মহলটি ধর্ষক পরে কাছে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে ধর্ষিতাকে অজ্ঞাত স্থানে আটক করে রাখে। এব্যাপারে ডিমলা থানার অফিসার ইনচার্জ সওকত আলীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন আমার কাছে কোন অভিযোগ আসেনি। তবে অভিযোগ করলে আইনুনগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ