• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন |

ডিমলায় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ৫০ জনের নামে মামলা

mamlaনীলফামারী  প্রতিনিধি: নীলফামারীর ডিমলায় সরকারি কাজে বাঁধাদান ও  কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যের ওপড় হামলার অভিযোগে উপজেল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার রায়কে প্রধান আসামী করে ২৫ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ২০/২৫ জনের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ডিমলা থানার উপ-পরির্দশক (এসআই) আবু  নাসের রায়হান বাদী হয়ে এই মামলা করেন।
এব্যাপারে রোববার দুপুরে ডিমলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শওকত আলী জানান, এই ঘটনায় শনিবার রাতেই সরকারি কাজে বাঁধা প্রদান ও  কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যেরওপড় হামলার অভিযোগ এনে ডিমলা  থানার এসআই আবু নাসের রায়হান বাদী হয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমারকে প্রধান আসামী করে ২৫ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ২০থেকে ২৫জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর নামে একটি মামলা (নং-১০) দায়ের করেন।
উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার রায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, যে অভিযোগে আমার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে তা আদৌ সত্য নয়। শনিবার সন্ধ্যায় পুলিশ সদস্যরা আমার মোটরসাইকেল আটক করলে উপস্থিত ছাত্রলীগ কর্মীরা কিছুটা উত্তেজিত হয়। তবে আমি বা আমার কোন নেতাকর্মী সরকারি কাজে বাঁধা  ও পুলিশ সদস্যের  ওপড় হামলা করিনি।
উল্লেখ্য যে, শনিবার সন্ধা ছয়টার দিকে ডিমলা উপজেলার শহীদ মিনার চত্বরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক আশরাফুজ্জামানের নেতৃত্বে  ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে বিভিন্ন যানবাহনের কাগজপত্র যাচাই-বাছাই চলছিলো। এসময় উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমারের মোটরসাইকেলটি আটক করায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা পুলিশের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে নেতাকর্মীরা পুলিশের ওপড় চড়াও হয়ে পুলিশের ওপড় হামলা চালায়। এসময় আল আমীন নামের এক পুলিশ সদস্য আহত হন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ এক রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ