• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন |

রাজারহাটে অভিভাবক না হয়েও জাপা নেতা সভাপতি

Oniomরফিকুল ইসলাম, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম): রাজারহাটে পাঠানহাট মহিলা দাখিল মাদ্রাসায় সুপার মোঃ মোখতার আলীসহ কতিপয় ব্যক্তির যোগসাজসে কমিটি গঠন করায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ও অভিভাবকরা ওই কমিটি ভেঙ্গে দেয়ার দাবীতে রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে।
অভিযোগে প্রকাশ, সদর ইউপি’র পাঠানহাট মহিলা দাখিল মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটি দীর্ঘদিন ধরে সুপার মোঃ মোখতার আলী তার পছন্দের ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি গঠন করে আসছিল। সম্প্রতি পূর্বের কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ায় চুপি সারে গত ০৯-০২-২০১৪ইং হতে ১১-০২-১৪ ইং মনোনয়ন পত্র বিক্রি শুরু করে এবং ওই প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক-এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের কাউকে বিষয়টি জানানো হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে সুপার তড়িঘড়ি করে গত ১৩-০২-১৪ ইং মনোনয়নপত্র বাছাইসহ ১৬-০২-১৪ইং বিকেল ৩ ঘটিকায় মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন দেখিয়ে গত ০৩-০৩-১৪ ইং তারিখে নির্বাচন সম্পন্ন করে কমিটি গঠন দেখানো হয়। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক এলাকাবাসী ও অভিভাবকরা এ প্রতিনিধিকে বলেন, জাপা’র সাবেক উপজেলা সাঃ সম্পাদক মোঃ মোবারক আলী ব্যাপারী ওই প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক না হয়েও দীর্ঘদিন ধরে তিনি সভাপতির পদে আসীন ছিলেন। সম্প্রতি নতুন কমিটিতেও তাকে সভাপতির পদে বহাল রাখার খবরে এলাকাবাসী ও অবিভাবকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। পরে ওই কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে নতুন কমিটি গঠনে এলাকাবাসী ও অভিভাবকরা স্বাক্ষরিত অভিযোগ রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে, রেজিষ্ট্রার বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড-ঢাকা, কুড়িগ্রাম-২ আসনের সংসদ সদস্যসহ বিভিন্ন দপ্তরে দাখিল করেছেন। এ বিষয়ে রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস.এম. মাজহারুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। উপজেলা মাধ্যমিক শিা অফিসারকে তদন্তপূর্বক শীঘ্রই রিপোর্ট প্রদান করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কুড়িগ্রাম-২ আসনের সংসদ সদস্য ও বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ আলহাজ্ব তাজুল ইসলাম চৌধুরীর মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাঁকে পাওয়া যায়নি। সুপার মোঃ মোখতার আলী বলেন, কমিটি ভেঙ্গে দেয়ার ক্ষমতা তার নেই। সংশ্লিষ্ট বিভাগ ভেঙ্গে দিলে পরবর্তীতে সকলের সঙ্গে আলোচনা স্বাপেক্ষে নতুন কমিটি গঠন করা হবে। সবমিলিয়ে বর্তমান ওই মাদ্রাসাটিতে শিক্ষা কার্যক্রম ভেঙ্গে পড়াসহ নিয়ম-শৃঙ্খলা বলতে কিছুই নেই। প্রথম শ্রেণী হতে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত বর্তমান পাঠদান কার্যক্রম প্রায়ই বন্ধ। এলাকাবাসী অবিলম্বে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা কমিটি পুনঃগঠনসহ সুষ্ঠ শিক্ষার ব্যবস্থা ফিরে আনার জোর দাবী জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ