• মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৩:০৫ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :

হেফাজতের ৫০ কোটি টাকা পুরস্কার ঘোষণা

Hepazotচট্টগ্রাম: হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নামে অবৈধ সম্পদ আছে, যদি কেউ এমন প্রমাণ দিতে পারেন তবে তাকে ৫০ কোটি টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে।

মঙ্গলবার রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো হেফাজতে ইসলামের চট্টগ্রাম মহানগর শাখার প্রচার সম্পাদক আ ন ম আহমদ উল্লাহ স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে, আল্লামা শফীর নামে অবৈধভাবে দখলকৃত কোনো জমি বা সম্পত্তি নেই।

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মঈনুদ্দিন রূহী দাবি করেছেন, আল্লামা শফী ও তার পুত্র আনাস মাদানীর সম্পদ নিয়ে অমুলক খবর প্রকাশ গণমাধ্যমের বাড়াবাড়ি। আল্লামা আহমদ শফী সাধারণ মানুষ নন। তাকে বাহ্যিক দৃষ্টিতে আর্ত-সহজ-সরল দেখালেও তার সম্পর্ক মদিনায়ে তাইয়্যবার সঙ্গে। তার আল্লাহ প্রেমে মগ্ন থাকা এবং নির্লোভতা সারা দেশের মানুষের কাছে স্বীকৃত। আল্লামা শফীর মতো খোদা ভীরু আলেম ও শায়খুল হাদিস শুধু উপমহাদেশে নয়, পুরো মুসলিম বিশ্বে বিরল।

হেফাজতের বিবৃতিতে বলা হয়, লুটপাট, দুর্নীতি ও সরকারি জমি দখলকারী রাজনৈতিক নেতাদের মতো হেফাজতের আমিরকে একই পাল্লায় মাপলে মিডিয়া ও সমাজ চরম ভুল করবে। শুধু সরকার বা রেলের ৩৩ বা ৩৫ কোটি টাকার জমি দখল নয়, আহমদ শফীর নিজের নামে এক শতক জমি অবৈধভাবে দখলে আছে- তা কেউ প্রমাণ করতে পারলে তাকে ৫০ কোটি টাকা উপহার দেওয়া হবে। আর যদি তা না হয় তাহলে সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করব বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করুন।

বিবৃতিতে রূহী বলেন, শাহবাগের পরাজিত শক্তি আহমদ শফীর বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা এবং পত্রিকায় তথ্য সন্ত্রাসের মাধ্যমে তার মান-সম্মান ক্ষুণ্ণ করার অপকৌশল গ্রহণ করেছেন। ২৫ এপ্রিল চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত একটি পত্রিকায় ‘আল্লামা শফীপুত্র আনাসের সম্পদ হঠাৎ বেড়ে গেছে’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, হাটহাজারী উপজেলা সদরে ২০ কাঠা জমির ওপর পাঁচটি বহুতল ভবন এবং রাঙ্গুনিয়ার লিচু বাগানে শফীর ছেলে আনাস মাদানির ‘মাদানি মঞ্জিল’ নামে আরেকটি বহুতল ভবনের নির্মাণ কাজ চলছে। এর আগে হেফাজতে ইসলামের বিরুদ্ধে হাটহাজারী মাদ্রাসা সংলগ্ন রেলওয়ের জমি দখলের অভিযোগ নিয়ে কয়েকটি অনলাইন পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

রূহী আরো বলেন, মাওলানা আনাস সাহেবের সম্পদের ব্যাপারে প্রশ্ন তোলা হয়েছে, যা ডাহা মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। মাওলানা আনাস সাহেবের নিজস্ব কোনো বিল্ডিং এ পর্যন্ত হাটহাজারী ও রাঙ্গুনিয়ায় কেউ দেখাতে পারবেন না এবং তার নামে কোনো সম্পদ এ দুটি স্থানে নেই।

রাইজিংবিডি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ