• রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন |

শীতলক্ষ্যায় মিলেছে আরো একটি লাশ

04_Nazrul+Islam+Death+Narayanganj_3004140022_21505সিসি নিউজ: নারায়ণগঞ্জে অপহৃত ছয় জনের লাশ উদ্ধারের পর শীতলক্ষ্যায় মিলেছে আরো একটি লাশ, পুলিশের ধারণা, কাউন্সিলর নজরুল ইসলামের গাড়ি চালকের হতে পারে লাশটি।বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের শান্তিনগর এলাকা সংলগ্ন নদীতে লাশটি ভেসে উঠে।

এদিকে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আজ সকাল থেকে নারায়ণগঞ্জে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) মোতায়েন করা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মনোজ কান্তি বড়াল জানান, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আজ সকাল থেকে নারায়ণগঞ্জে বিজিবির ২০০ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

এর আগে নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার চর ধলেশ্বরী এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদী থেকে কাউন্সিলর নজরুল ইসলামসহ তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নজরুল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং প্যানেল মেয়র ছিলেন। উদ্ধার হওয়া অন্য দুটি মরদেহ নজরুলের বন্ধু এবং সহযোগী তাজুল ও স্বপনের।

মঙ্গলবার বিকেলে নজরুলের ভাই মরদেহটির পরিচয় নিশ্চিত করেন। নজরুলের পরনের কাপড় দেখে পরিচয় শনাক্ত করা হয়। এরপর একে একে শনাক্ত করা হয় অন্য দুটি মরদেহ।

বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে উদ্ধার অভিযান শুরু হয়ে চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত। পরে সেগুলো ব্যাগে ভরে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়। সন্ধ্যা ৬টার দিকে মরদেহগুলো নিয়ে ইঞ্জিনচালিত একটি ট্রলার চর ধলেশ্বরী ছেড়ে যায়।

চর ধলেশ্বরী এলাকার বিভিন্ন স্পট থেকে মরদেহগুলো উদ্ধারের সময় পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় আশপাশের গ্রামগুলোর উৎসুক জনতা ভিড় করেন ঘটনাস্থলে। স্বজনদের আহাজারিতে সেখানকার আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে ওঠে।

এদিকে নদী থেকে মরদেহ উদ্ধারের খবর ছড়িয়ে পড়লে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে শিমরাইল পর্যন্ত অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন স্থানীয়রা।
ঘটনাস্থলে উপস্থিত বন্দর থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত ) মোকাররম হোসেন বলেছেন, প্রত্যেকটি মরদেহের হাত-পা বাঁধা। নাভিতে আঘাতের চিহ্ন স্পষ্ট। মরদেহগুলো অর্ধগলিত। এগুলোর পরিচয় পরনের কাপড় দেখে শনাক্ত করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, যে এলাকায় মরদেহগুলো উদ্ধার হলো, সেটি খুবই দুর্গম হিসেবে পরিচিত। ধারণা করা হচ্ছে, এই দুর্গম চরে হত্যা করার পর মরদেহগুলো নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ আরো ধারণা করছে, এলাকাটিতে আরো মরদেহ পাওয়া যেতে পারে।

ওসি মোকাররম হোসেন আরো বলেন, ‘প্রথমে স্থানীয়রা নদীর কচুরিপানার মধ্যে মরদেহগুলো ভাসতে দেখে আমাদের খবর দেন। পরে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহগুলো উদ্ধার-তৎপরতা শুরু করেন।’

উল্লেখ্য, গত রোববার দুপুরে কাউন্সিলর নজরুল ও তার চার সহযোগীকে অপহরণ করা হয়। এদিন রাতে গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুরে নজরুলের গাড়িটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। অপহরণের আগে তারা মামলার হাজিরা দিতে আদালতে গিয়েছিলেন।

সেখান থেকে বের হওয়ার পরই তারা অপহৃত হন। একই দিন রাতে খবর আসে অ্যাডভোকেট চন্দন কুমার সরকার ও তার গাড়িচালক ইব্রাহিমও অপহৃত হয়েছেন। চন্দনের গাড়িটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় ঢাকার নিকেতন এলাকা থেকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ