• মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৩:৪৬ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :

চিরিরবন্দরে মিষ্টি কুমড়ার চাষে কৃষকদের আগ্রহ বাড়ছে


জামাল উদ্দিন : চিরিরবন্দর উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের কৃষকদের মিষ্টি কুমড়া চাষে আগ্রহ বেড়েছে। মিষ্টি কুমড়া চাষে লাভ বেশি হওয়ায় কৃষকরা অধিকহারে বাণিজ্যিকভাবে মিষ্টি কুমড়া চাষ করছে। বিষেশ করে উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের কৃষকদের বেশি মিষ্টি কুমড়া চাষ করতে দেখা গেছে।
গত দুই-তিন বছরে সবজির দাম ভালো থাকায় উপজেলার মিষ্টি কুমড়া চাষ বৃদ্ধি পেয়েছে। অল্প জমিতে স্বল্প পরিশ্রমে অধিক লাভের আশায় কৃষকরা ঝুঁকছেন মিষ্টি কুমড়া চাষে। মিষ্টি কুমড়া ছাড়াও এর লতা-পাতা শাক ও সবজি হিসেবে বিক্রি করেও লাভবান হচ্ছেন তারা। এছাড়া অন্য ফসলের জমিতে অতিরিক্ত হিসেবে মিষ্টি কুমড়া চাষ করা যায়।
উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখাগেছে, ফতেজংপুর, কেষ্টহরি, বিন্যাকুড়ি, বাসুদেবপুর, ভিয়াইল, পুননট্রি, তেতুলিয়া, নশরতপুর,আলোকডিহিসহ বিভিন্ন গ্রামের কৃষকেরা বাণিজ্যিক হারে মিষ্টি কুমড়া চাষ করছে। অনেক পরিবার মিষ্টি কুমড়া চাষ করে লাভবান হচ্ছেন। নওখৈর গ্রামের আইয়ুব আলী বলেন, মিষ্টি কুমড়া জনপ্রিয় সবজি। তিনি জানান, তার ২০ শতাংশ জমিতে মিষ্টি কুমড়া চাষে যে খরচ করেছেন এরই মধ্যে তার দ্বিগুণ লাভ হয়েছে। মৌসুমের বাকি সময়গুলো আরও মিষ্টি কুমড়া বিক্রি হবে বলেও তিনি জানান।
আবদুল পুর গ্রামের সোবহান আলী বলেন, গত এক মাসে তিনি প্রায় ৩০ হাজার টাকার মিষ্টি কুমড়া ও পাতা (শাক) বিক্রি করেছেন। উত্তর ভবানীপুর গ্রামের ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, আমি ৩০ শতাংশ জমিতে আলু লাগিয়ে ছিলাম আলুর ফাঁকে ফাঁকে মিষ্টি কুমড়াও। ওই জমি থেকে ৪ থেকে ৫ হাজার টাকার মিষ্টি কুমড়া বিক্রি করবো আশা করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ