• মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৩:০৬ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :

৩০ ঘন্টা পর বিদ্যুত……

Electricityহাসান মাহমুদ, লালমনিরহাট: ৩০ ঘন্টা অন্ধকারে থাকার পর বিদ্যুৎ পেল লালমনিরহাটের তিনটি উপজেলা। বৃহস্পতিবার সকালে সামান্য বৃষ্টিতেই বিদ্যুতহীন হয়ে পড়ে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ, হাতীবান্ধা ও পাটগ্রাম উপজেলার কয়েক লাখ মানুষ। দীর্ঘ সময় পর শুক্রবার বিকেলে পুনরায় বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হলে ভোগান্তির অবসান ঘটে।
এদিকে সামন্য ঝড় বৃষ্টিতে বিদ্যুৎ নিয়ে ভোগান্তি বছরের পর বছর ধরে চলে আসছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। তাই এমন সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্টদের প্রতি দাবি জানান তারা।
এলাকাবাসীরা বলছেন, বিদ্যুৎ নিয়ে এমন দুর্ভোগ নতুন কিছু নয়। প্রতিবছরই সমান্য ঝড় বৃষ্টিতে ২/১ দিন করে বিদ্যুৎ সেবা থেকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে ওই উপজেলাগুলোকে। এতে সংশ্লিষ্টদের চরম অবহেলার কথাও জানান ভুক্তভোগিরা। তবে এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বিদ্যুৎ বিভাগের দায়িত্বরত কর্মকর্তারা।
তাদের ভাষ্য মতে, জেলা সদর থেকে প্রায় ৯০ কিলোমিটার দুরত্বের বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনটি বেশ পুরনো হয়ে গেছে। ফলে সমান্য ঝড় বৃষ্টির কারণে ৩৩ কেভি ওই সঞ্চালন লাইনের ইন্সুলেটরগুলি প্রায় সময় বিকল হলে বৈদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে পড়ে। পরে দীর্ঘ ওই লাইনের বিকল ইন্সুলেটর সনাক্ত করে মেরামতে প্রচুর সময় লাগে বলে দাবি স্থানীয় বিদ্যুৎ বিভাগের।
হাতীবান্ধা উপজেলার বিদ্যুৎ গ্রাহক সইদুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম আলমসহ অসংখ্য মানুষজনের অভিযোগ, সামান্য ঝড় বৃষ্টিতেই বিদ্যুৎ চলে গেলে আর আসে না। এলেও তা ১ দিন কিংবা ২/৩ দিন সময় লাগে। তাই ওই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সংশ্লিষ্টদের কাছে স্থায়ী সমাধান দাবি করেন তারা।
হাতীবান্ধা আবাসিক বিদ্যুৎ প্রকৌশলী মোক্তার হোসেন বলেন, বিদ্যুৎ সরবরাহে তাদের কোন অবহেলা নেই। ৩৩ কেভি লাইনে সমস্যা দেখা দেয়ায় এমনটি হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ