• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১০:৩৫ পূর্বাহ্ন |

উত্তরা থেকে ব্যবসায়ী অপহরণ, ৭০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

Opohoronসিসি নিউজ: রাজধানীর উত্তরা থেকে ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিনকে (২০) অপহরণ করা হয়েছে। মুক্তিপণ হিসেবে অপহরণকারীরা তার পরিবারের কাছে ৭০ লাখ টাকা এবং ২০ ভরি স্বর্ণ দাবি করেছে। এ ঘটনায় জসিম উদ্দিনের বাবা খলিলুর রহমান তুরাগ থানায় একটি মামলা করেছেন (মামলা নম্বর ০২)। ঘটনার পর থেকে পুরো পরিবার চরম দিশেহারা হয়ে পড়েছে।
অপহৃত জসিমের চাচা আব্দুর রশিদ জানান, বুধবার সকাল ৯টার দিকে জসিম উদ্দিন প্রতিদিনের মতো উত্তরার ৩ নম্বর সেক্টরে তাদের ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হয়। তার পর দিন একটি ফোন আসে এবং জানানো হয় তার মুক্তপণ হিসেবে ৭০ লাখ টাকা এবং ২০ ভরি স্বর্ণ দিতে হবে, অন্যথায় তাকে হত্যা করা হবে।
অপহরণকারীরা জসিমের পরিবারের কাছে মোবাইল ফোনে জানায়, স্থানীয় কিছু অপহরণকারীর কাছ থেকে ২০ লাখ টাকার বিনিময়ে তাকে কেনা হয়েছে এবং ঘটনাটি যদি কোনো সংবাদ কর্মী বা মিডিয়াকে জানানো হয় তাহলে তাকে আর জীবিত পাওয়া যাবে না।
আব্দুর রশিদ আরো জানান, হরিরামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল হাশেম ওই ঘটনাটির তদারকির দায়িত্ব নিয়েছে এবং তাদের পরিবারকে চুপচাপ থাকার জন্য বলা হয়েছ।
অপহরনের তিন দিন পরে (শুক্রবার রাতে) মামলার বিলম্বের কারণ জানতে চাইলে পরিবারের লোকজন জানান, ঘটনার দিন উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডি করা হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো খোঁজ না পেয়ে আমরা থানায় মামলা করতে বাধ্য হই। তারা আরো অভিযোগ করেন, তুরাগ থানা পুলিশ মামলা নিতে টালবাহানার করায় মামলা করতে বিলম্ব হয়েছে।
তুরাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবির মো: হোসেন সাংবাদিকদের জানান, উত্তরা পশ্চিম থানার রাজলক্ষ্মী মার্কেটের পেছনে তাদের একটি খাবার হোটেল আছে এবং প্রতিদিনের মতো হোটেলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হলে আব্দুল্লাহপুরে এক চায়ের দোকানে জসিমের সাথে মো: আলী নামের এক ব্যক্তির দেখা হয় এবং বিকেলের দিকে জসিম তার মাকে ফোন করে জানায় সে সিরাজগঞ্জ আছে। তার পরদিন (বৃহস্পতিবার) তার চাচার কাছে ফোন আসে, জসিম গ্যাঁড়াকলে পড়েছে, তাকে জীবিত চাইলে ৭০ লাখ টাকা এবং কিছু স্বর্ণ দিতে হবে। তিনি আরো জানান, ঘটনার পর দিন উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডিও করেন তারা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ