• সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১২:০০ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলা বায়েজিদ আটক নীলফামারী জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের শ্বশুড়ের ইন্তেকাল সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের গ্রন্থাগারের মূল্যবান বইপত্র গোপনে বিক্রি ফেনসিডিলসহ সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেপ্তার এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতে রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকবে ৮ দিন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিন: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যেতে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা সৈয়দপুরে বিস্কুট দেয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ গণমানুষের সমর্থনেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

আলমডাঙ্গায় ভাগ্নের হাতে মামা খুন

Madarচুয়াডাঙ্গা: চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার হারদী গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সফিউদ্দীন (৩৪) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার আপন ভাগ্নেরা। সোমবার রাত ৯টার দিকে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। একই ঘটনায় আরও ৫ জন গুরুতর আহত হন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।নিহত সফিউদ্দীন হারদী গ্রামের হারেজ উদ্দীনের ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আলমডাঙ্গার হারদী গ্রামের সফিউদ্দিনের সঙ্গে তার বোনেদের জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো।

এর জের ধরে রাতে সফিউদ্দিন ও তার বোনের ছেলেরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে সফিউদ্দিনসহ ৫ জনকে তার ভাগ্নেরা পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করেন।গুরুতর আহত অবস্থায় সফিউদ্দিনকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। আহত অন্যদের উদ্ধার করে হারদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেওয়া হয়।

নিহত সফির ভাই রবিউল মাস্টারের অভিযোগ, ভাগ্নে সোনা ও মিনারুল ৭/৮ জনকে সঙ্গে নিয়ে আকস্মিক এই হামলা চালায়। তারা নিহত সফির ঘর বাড়িতে ভাঙচুর এবং লুটপাট করে। তিনি আরো জানান, হামলাকারীরা সফির ভাবি বাচেনা খাতুন, ফরিদা খাতুন, ভাই আজিবর রহমান, মজিবর রহমান ও গ্রামের আতিয়ার রহমানকেও পিটিয়ে আহত করে। আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এখনো থানায় মামলা করা হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ