• রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন |

গুম খুন অপহরণে ভাবমূর্তি সংকটে সরকার!

Awamili Flagসিসি ডেস্ক: সাম্প্রতিক নারায়ণগঞ্জে গুম ও খুনের ঘটনায় অস্বস্তি ও ভাবমূর্তি সংকটে পড়েছে ক্ষমতাসীনরা। এসব ঘটনা নিয়ে ক্ষমতসীনদের মধ্যেই চলছে বিভিন্ন শঙ্কা ও আশঙ্কার উদ্বেগ।
এমনকি সোমবার মন্ত্রীসভার বৈঠকেও ক্ষমতাসীন মন্ত্রীরা এনিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এছাড়াও সরকারদলীয় মন্ত্রী, এমপি ও নেতারা ছাড়াও বর্তমান ক্ষমতাসীন বিরোধী দল জাতীয় পার্টিসহ সাবেক বিরোধী দল বিএনপির বিভিন্ন সমালোচনার তোপের মুখে পড়ছে সরকার।
সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন নেতাদের এরকম বক্তব্যে এই চিত্র প্রতীয়মান হয়েছে।
সোমবার মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় নির্ধারিত এজেন্ডার বাইরে নারায়ণগঞ্জের পরিস্থিতি নিয়ে মন্ত্রীরা বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর নজরে আনেন। এমনকি মন্ত্রীরা বলেন, ‘এরকম পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শিগগিরই কঠোর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন। এতে জনমনে যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি হতে পারে, তা সরকারের বিপক্ষেই যেতে পারে।’
সোমবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সিটিউট মিলনায়তনে নৌকা সমর্থক গোষ্ঠি আয়োজিত আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, ‘এই মাল তো আওয়ামী লীগের না। এটা সুবিধাবাদি। সে আগে করেছে জাতীয় পার্টি, পরে বিএনপি, এখন আওয়ামী লীগ করছে। সরকারের একজন মন্ত্রী বলেছেন, খুনিরা এখনো দেশে আছে। আমি বলব, খুনিরা দেশে আছে না, দেশ ছেড়েছে বা পাতালে গেছে সেটা বিষয় না। তাদের গ্রেফতার করতেই হবে।’
এদিকে সোমবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির খাজা নিজামুদ্দিন মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু একাডেমির আলোচনা সভায় ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সংসদ সদস্য হাজি সেলিম খুন, গুম ও অপহরণ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, ‘৫ জানুয়ারির নির্বাচনের সময় বিএনপি ও জামাত সারা দেশে যেভাবে চোরাগোপ্তা হামলার সূচনা করেছিল সেটাই এখনো চলছে। এতে আমি আতঙ্কে আছি। ’
অন্যদিকে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন কেন্দ্রীয় ১৪ দলের অন্যতম ওয়ার্কার্স পার্টি সারাদেশে অপহরণ, খুন ও গুম হত্যার প্রতিবাদে ৮মে সারাদেশে জেলা প্রশাসক (ডিসি) বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করার কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। রোববার নবম কংগ্রেস পরবর্তী পলিটব্যুরোর সভায় ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের সভাপতিত্বে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
রোববার রংপুরের পাগলাপীর, পালিচড়া, লাহিড়ীরহাট ও মমিনপুরের পথসভায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দেশে বর্তমানে অপহরণ, গুম, খুন, হত্যা, সন্ত্রাস বেড়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন। সে সময় তিনি আরো বলেন, ‘এতে দেশের মানুষ ভীত হয়ে পড়েছে। এর আগে কখনও এসব ছিল না। সরকারের উচিত এসব কঠোর হাতে দমন করা। তা না হলে দেশের মানুষ রাজপথে নেমে আসবে।’
এছাড়া বিএনপিসহ সরকারবিরোধী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলোও সাম্প্রতিক এসব ঘটনাকে কেন্দ্র করে সরকার আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি তুলছে।
উৎসঃ   রাইজিংবিডি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ