• বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০১:২৯ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
ইউনূস, হিলারি ও চেরি ব্লেয়ারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার দাবি সংসদে মার্কেট-শপিং মলে মাস্ক বাধ্যতামূলক করে প্রজ্ঞাপন খানসামায় র‌্যাবের অভিযান ইয়াবাসহ দুই মাদককারবারী গ্রেপ্তার ডোমার ও ডিমলায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ ১০ উদ্যোগ নিয়ে কর্মশালা নীলফামারীতে ৫ সহযোগীসহ কুখ্যাত চোর ফজল গ্রেপ্তার সৈয়দপুরে তথ্যসংগ্রহকারী ও সুপারভাইজারদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত জয়পুরহাট বিনা খরচে আইনের সেবা পেতে সেমিনার শিক্ষক লাঞ্চনা ও হেনস্তার বিরুদ্ধে সৈয়দপুরে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর প্রতিবাদ সমাবেশ সৈয়দপুরে শহীদ আমিনুল হকের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে বিনামূ‌ল্যে বীজ ও সার বিতরণ

ইংলাককে পদত্যাগের নির্দেশ আদালতের

Thiআন্তর্জাতিক ডেস্ক: থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রাথাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রাকে তাঁর পদ ছাড়তে হবে। ক্ষমতার অপব্যবহারের মামলায় বুধবার দেশটির সাংবিধানিক আদালত এ রায় দিয়েছেন। ক্ষমতার অপব্যবহার করার অভিযোগে করা মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থন করতে গতকাল মঙ্গলবার আদালতে হাজির হন ইংলাক। নিজেকে নির্দোষ দাবি করে গতকাল আদালতে তিনি বলেন, ‘আমি কোনো আইন লঙ্ঘন করিনি। নিরাপত্তাপ্রধান নিয়োগের মাধ্যমে আমি কোনো সুবিধা নিইনি।’

বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ইংলাককে প্রধানমন্ত্রীর পদ ছাড়তে হবে বলে সাংবিধানিক আদালত আজ রায় দিয়েছেন। এই রায়ে থাইল্যান্ডে চলমান রাজনৈতিক সংকট আরও গভীর হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ইংলাকের সমর্থক ও বিরোধীরা রাজপথে পাল্টাপাল্টি সমাবেশের হুমকি দিচ্ছে। ২০১১ সালে নির্বাচনের পর ইংলাকের দলীয় স্বার্থে তত্কালীন নিরাপত্তাপ্রধান থাওইল প্লিনেস্রিকে সরিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ আনা হয়।

সাংবিধানিক আদালতের প্রধান চারুন ইনতাচান বলেন, অভিযোগের শুনানিতে যথেষ্ট সাক্ষ্যপ্রমাণ নেওয়া হয়েছে। নয় সদস্যের বেঞ্চ আদালত বুধবার রুলিং দেওয়ার জন্য প্রস্তুত? আজ আদালত তাঁর রুলিংয়ে বলেছেন, তৎকালীন নিরাপত্তাপ্রধান থাওইল প্লিনেস্রিকে সরিয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে আইন লঙ্ঘন করেছেন ইংলাক।

সরকারপন্থী ‘লাল শার্ট’ কর্মীরা ইংলাকের অব্যাহতি ঠেকানোর অঙ্গীকার করেছেন। ফলে আদালতের রায় ইংলাকের বিরুদ্ধে যাওয়ায় ভয়াবহ রাজনৈতিক সংঘর্ষের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ছয় মাস ধরে বিক্ষোভের মধ্যে রাজনৈতিক সহিংসতায় দেশটিতে অন্তত ২৫ জনের মৃত্যু ও বহু মানুষ আহত হয়েছে। থাই রাজনীতিতে সম্প্রতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন সাংবিধানিক আদালত। সমালোচকদের অভিযোগ, আদালতের তড়িঘড়ি তত্পরতা রাজনৈতিকভাবে সিনাওয়াত্রা পরিবারের বিরুদ্ধে যাচ্ছে।

বিরোধীরা অভিযোগ করছে, ইংলাক তাঁর ভাই থাকিসনের নির্দেশনা অনুযায়ী রাষ্ট্র পরিচালনা করছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ