• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন |

ঝিনাইদহে ওসিসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা

mamlaঝিনাইদহ : ঝিনাইদহে ইউপি সদস্য ও জামায়াত কর্মী আবুল কালামকে অপহরণের পর হত্যা করা হয়েছে। এঘটনায় কোটচাঁদপুর থানার ওসিসহ আটজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার বিকেলে নিহতের স্ত্রী হাসিনা বেগম জেলার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. তাজুল ইসলামের বিচারিক আদালতে এই মামলা দায়ের করেন।

আদালত তদন্ত সাপেক্ষে সাত কার্যদিবসের মধ্যে কোটচাঁদপুর থানাকে মামলাটি এজাহার হিসাবে নেবার নির্দেশ দিয়েছে।

মামলার বাদী হাসিনা বেগম অভিযোগ করেন, তার স্বামী আবুল কালামকে গত ১৮ এপ্রিল দুপুরে প্রকাশ্যে নিজ বাড়ি থেকে লাল রংয়ের একটি মাইক্রোবাসে একদল সন্ত্রাসী অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তাকে কোটচাঁদপুরের গুড়পাড়া পুলিশ ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ ঘটনার সাথে জড়িত কোটচাঁদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলুর রহমান, এসআই মিজান, বাজার গোপালপুর ফাঁড়ির এএসআই শিবুপদ দত্তসহ বলাবাড়িয়া এলাকার মতিয়ার রহমান কালু, মজনুর রহমান, শাহিনুর রহমান, জাহিদুল মাস্টার ও মিজানুর রহমান এর নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রশাসনের সহযোগিতায় অভিযুক্ত আসামিরা হাসিনা বেগমের স্বামী আবুল কালামকে স্থানীয় গোপালপুর ক্যাম্পে নিয়ে যায়। এসময় এলাকাবাসি বাধা দেয় বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

ঘটনার তিন দিন পর ২১এপ্রিল আবুল কালামের গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায় সদর উপজেলার মামুনশিয়া গ্রামে। আসামিরা পরিকল্পিতভাবে তাকে গুলি করে হত্যা করেছে বলে আদালতের মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে।

নিহতের স্ত্রী জানান, একজন জনপ্রতিনিধি হওয়ার পরও জামায়াতের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকার অপরাধে পুলিশ গুলি করে তাকে হত্যা করেছে, তিনি আদালতের মাধ্যমে ন্যায় বিচার পাবেন বলেও জানিয়েছেন।

কোটচাঁদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলুর রহমান জানান, পুলিশকে বিতর্কিত করতে আদালতে এমন অভিযোগ করা হয়েছে। যারা অভিযোগ করছে সেই পরিবারের সদস্যরা বিভিন্ন মামলার আসামি, এসব মামলা থেকে রেহাই পেতে উল্টো অভিযোগ করছে। আইনি প্রক্রিয়ায় এসব মোকাবেলা করা হবে বলে তিনি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ