• সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৪:৫০ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :
পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলা বায়েজিদ আটক নীলফামারী জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের শ্বশুড়ের ইন্তেকাল সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের গ্রন্থাগারের মূল্যবান বইপত্র গোপনে বিক্রি ফেনসিডিলসহ সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেপ্তার এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতে রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকবে ৮ দিন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিন: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যেতে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা সৈয়দপুরে বিস্কুট দেয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ গণমানুষের সমর্থনেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

নারায়ণগঞ্জে ৭৯ পুলিশ কর্মকর্তাকে একযোগে বদলি

04_Nazrul+Islam+Death+Narayanganj_3004140022_21505নারায়ণগঞ্জ: আলোচিত সাত খুনের ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ, ফতুল্লা ও সিদ্ধরগঞ্জ থানার ৪০ জন এসআই এবং ৩৯ জন এএসআইকে একযোগে বদলি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে এ আদেশ পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে পৌঁছে।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার খন্দকার মহিদ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বদলিকৃত এসব পদে কোনো কর্মকর্ত‍া যোগদান করেননি। তবে আগামীকালের মধ্যে কর্মকর্তারা যোগ দিতে পারেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল মতিনকে টাঙ্গাইলে, গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মাহবুব রেজা ও তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল আওয়ালকে বরিশাল রেঞ্জে বদলি করা হয়।

এদিকে গত ​মঙ্গলবার একই ঘটনায় র‌্যাব কর্মকর্তা ত্রাণমন্ত্রী মায়ার জামাই লেফটেন্যান্ট কর্নেল তারেক সাঈদ মাহমুদ, মেজর আরিফ হোসেন ও লে. কমান্ডার এম এম রানাকে চাকরিচ্যুত করা হয়। তাদেরকে বর্তমানে ক্যান্টনমেন্ট ‘লগ এরিয়ায়’ অন্তরীণ রাখা হয়েছে।

তাদের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর ও গডফাদার নূর হোসেন ওরফে হোসেন চেয়ারম্যানের কাছ থেকে ছয় কোটি টাকা ঘুষ নিয়ে আরেক কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম ও প্রবীণ আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাত জনকে অপহরণ করে হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৭ এপ্রিল দুপুর ২টায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামের সামনে থেকে কাউন্সিলর নজরুলকে বহনকারী প্রাইভেটকারটিকে সামনে এবং পেছন থেকে দুটি মাইক্রোবাস ঘিরে ধরে।

পরে নজরুলসহ তার প্রাইভেটকারের চালক জাহাঙ্গীর, বন্ধু তাজুল, স্বপন ও লিটনকে অস্ত্রের মুখে প্রাইভেটকার থেকে নামিয়ে মাইক্রোবাসে তুলে নেয়া হয়। এছাড়াও অপহরণ করা হয় প্রবীণ আইনজীবী চন্দন কুমার সরকার ও তার প্রাইভেটকার চালক ইব্রাহিমকে।

অপহরণের চার দিন পর ৩০ এপ্রিল বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শীতলক্ষ্যা নদী থেকে নজরুল ইসলাম ও চন্দন সরকারসহ ছয়জনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পর দিন ১ মে নজরুলের গাড়ি চালক জাহাঙ্গীরের লাশও উদ্ধার করা হয় শীতলক্ষ্যা থেকেই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ