• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৪:০৯ পূর্বাহ্ন |

ফুলবাড়ীতে স্কুলছাত্রীকে ভারতে পাচারের চেষ্টায় আটক-১

36922_Fulbari Picture= 08.05ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: আত্মীয়তার রেশ ধরে কৌশলে ভারতে পাচার করার সময় কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে অপহরণকারী যুবকসহ ১০ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে আটক করেছে স্থানীয় জনতা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার ফুলবাড়ী উপজেলার নাখারজান সীমান্তে । এ ঘটনায় ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার উপজেলার ভাঙ্গামোড় গ্রামের শ্রী রামজিত রবিদাসের কন্যা ও নগরাজপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী কুমারী জয়ন্তী রাণী প্রতিদিনের মত স্কুলে যাওয়ার প্রস্তুতি নেয়। এ সময় দুসর্ম্পকের প্রতিবেশী  দুলাভাই নুর ইসলামের সাথে তার মোবাইল ফোনে কথা হয়। ফোনালাপের একপর্যায়ে নুর ইসলাম তাকে সীমান্তে কাটাতারের বেড়া দেখতে যাওয়ার প্রস্তাব করে। মেয়েটির তার প্রস্তাবে রাজি হলে সাইকেল যোগে তাকে সীমান্ত এলাকায় নিয়ে যায় নুর ইসলাম। মেয়েটি কোনকিছু বুঝে উঠার আগেই চতুর নুর ইসলাম সীমান্তের ৯৪১নং মেইন পিলারের নিকটবর্তী কাটাতারের বাহিরে অবস্থীত ভারতীয় শেউটি গ্রামে বসবাসকারী  মোত্তালেবের বাড়ীতে তাকে নিয়ে যায়। সেখানে ভারতীয় দালাল সাইফুল, দাসিয়ারছড়া ছিটমহলের আলী হোসেন ও তার সঙ্গীদের কাছে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ভারতে পাচারের চেষ্টা করে। টাকার বিনিময়ে বিক্রি হওয়ার বিষয়টি বুঝতে পেরে বুদ্ধিমতি জয়ন্তী রাণী চিৎকার দিলে তার সঙ্গে থাকা বই খাতা দেখে এলাকাবাসীর সন্দেহ হয়। এক পর্যায়ে দু’জনের কথায় গরমিল পাওয়ায় বিএসএফ-বিজিবি আসার আগেই স্থানীয়রা তাদেরকে আটক করে বাংলাদেশী সীমান্ত বাসীদের কাছে ফেরত দেয়। খবর পেয়ে মেয়েটির অভিভাবকসহ কয়েকজন শিক্ষক ঘটনাস্থলে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। আটক যুবক হলেন উপজেলার পুর্ব-ধনিরাম গ্রামের তাহের আলীর পুত্র এবং জয়ন্তীর প্রতিবেশী মঞ্জুর আলীর জামাতা। সে ৩/৪ বছর আগে ভারতের দিল্লীতে বসবাস করেছিল বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে।
এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ বজলুর রশিদ জানান, আটক যুবকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। মেয়েটি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ