• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন |

‘গ্রেফতার নয়, হয়রানি-বাণিজ্য চলছে’

Mizanurঢাবি: মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান বলেছেন, সম্প্রতি হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানের ওপর সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িতরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এসব ঘটনায় অজ্ঞাতনামা কয়েকশ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। মূলত এসব মামলার মাধ্যমে গ্রেফতার নয় বরং হয়রানির বাণিজ্য চলছে। যে কারণে মূলহোতারা ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে’।

শনিবার সকাল ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ‘বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন’ বইটির প্রকাশনা অনুষ্ঠানের গোল টেবিল বৈঠকে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মিজানুর রহমান বলেন, সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় যাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে তাদের অনেকেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন না। আর যারা প্রকৃত দোষী তাদের অনেককেই বিরুদ্ধে মামলা হয়নি। সংখ্যালঘুদের ওপর হামলার ঘটনায় একটি মহল লুন্ঠন, ছিনতাই ও সংখ্যালঘুদের সম্পদ ভোগ করছে আর অন্য একটি মহল এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাদের ব্যক্তিগত ফায়দা হাসিলের চেষ্টা চালাচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘সংখ্যালঘু নির্যাতন বন্ধে প্রত্যেক এলাকায় সম্প্রীতির কমিটি গঠন করতে হবে।মূলত কারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের সনাক্ত করে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসতে হবে। এ বিষয়ে আমাদের সচেতনতা বাড়াতে হবে এবং সরকারকে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে’।

বৈঠকে দৈনিক ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্তের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক রেলমন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, আ.লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরে আলম লেনিন এমপি, এমিরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, অর্থনীতিবীদ রেহমান সুবহান, প্রাবন্ধিক ও সাংবাদিক সৈয়দ আবুল মকসুদ, রওনক জাহান, সাংবাদিক অজয় দাস গুপ্ত প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ