• বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০১:৩৪ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
ইউনূস, হিলারি ও চেরি ব্লেয়ারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার দাবি সংসদে মার্কেট-শপিং মলে মাস্ক বাধ্যতামূলক করে প্রজ্ঞাপন খানসামায় র‌্যাবের অভিযান ইয়াবাসহ দুই মাদককারবারী গ্রেপ্তার ডোমার ও ডিমলায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ ১০ উদ্যোগ নিয়ে কর্মশালা নীলফামারীতে ৫ সহযোগীসহ কুখ্যাত চোর ফজল গ্রেপ্তার সৈয়দপুরে তথ্যসংগ্রহকারী ও সুপারভাইজারদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত জয়পুরহাট বিনা খরচে আইনের সেবা পেতে সেমিনার শিক্ষক লাঞ্চনা ও হেনস্তার বিরুদ্ধে সৈয়দপুরে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর প্রতিবাদ সমাবেশ সৈয়দপুরে শহীদ আমিনুল হকের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে বিনামূ‌ল্যে বীজ ও সার বিতরণ

সৈয়দপুরে বিএনপি’র কমিটিতে বহিস্কৃতরা স্থান পাচ্ছেন না!

BNP Flagসাহবাজ উদ্দিন সবুজ: বিএনপির সৈয়দপুর জেলা কমিটি ভেঙ্গে দেয়ার দু’মাসের মধ্যে আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। গত ১১ এপ্রিল ওই আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। তবে আহবায়ক কমিটিতে যাদের নাম আছে তারাই বিগত এক যুগ ধরে দলের নীতি নির্ধারক পদে আসীন ছিলেন। এমনকি পুর্ণাঙ্গ কমিটিতে পূর্বের তালিকায় থাকা নেতাদের নাম নতুন করে ঘোষণা করা হবে। বিগত দিনে স্থানীয়ভাবে বহিস্কার হওয়া নেতাকর্মীদের নাম বাদ দিয়ে ওই পুর্ণাঙ্গ কমিটি হতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।
গত ১৯ ফেব্রুয়ারি উপজেলা নির্বাচনে পরাজয়ের পর তোপের মুখে পড়ে বর্তমান নেতৃত্ব। দলীয় শৃংঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে বহিস্কার হন দলের প্রথম সারির কয়েকজন নেতা। এর আগে বিগত পৌরসভা নির্বাচনে দ্বিধাবিভক্ত হয় সৈয়দপুর জেলা বিএনপি। যা এখনো লাইনচ্যুত অবস্থায় রয়েছে। স্থানীয় বিএনপির কয়েকজন নেতাকর্মী প্রকাশ্যে অপ্রকাশ্যে অন্যদলের হয়ে কাজ করছেন। তবে দীর্ঘদিন ধরে দলের কাউন্সিল না হওয়ায় হতাশ নেতাকর্মীরা জেলা কমিটি ভেঙ্গে যাওয়ার পর নতুন করে দলে ফেরার প্রস্তুতি নেয়। এতে দেখা দেয় দীর্ঘদিনের বিরোধ সমাধানের পূর্বসংকেত।
এদিকে গত ১০ এপ্রিল বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে সৈয়দপুর জেলা বিএনপির ৩৫ জনের একটি টিম সাাত করেছেন। ওই টিমের নেতৃত্বে ছিলেন পূর্বের কমিটির দুই প্রভাবশালী নেতা। তবে ওই টিম স্কোয়াডে স্থান হয়নি বিভিন্ন সময়ে বহিস্কৃত দলের বাইরে থাকা অনেক সিনিয়র নেতার। এদিকে দীর্ঘদিন ধরে আহবায়ক কমিটি দিয়েই পরিচালিত হচ্ছে ছাত্রদল। যারা ছাত্রদলের ওই স্কোয়াডে রয়েছেন তাদের অনেকেই বিবাহিত, অছাত্র ও ব্যবসায়ী। শুধুমাত্র ছাত্রদের নিয়ে নতুন কমিটি গঠনের তাগিদ দেওয়া হলেও সৈয়দপুর ছাত্রদলের কমিটি গঠন নিয়ে মতবিরোধ দেখা দিয়েছে। সবমিলিয়ে পূর্বের কমিটিতে সামান্য পরিবর্তন এনে নতুন পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।
বর্তমান নাজুক সৈয়দপুর বিএনপিকে চাঙ্গা করতে দ্বিধাবিভক্ত দলকে একত্রিত করার ব্যাপারে প্রাথমিক পর্যায়ে একাগ্রতা দেখা দিলেও বাস্তবে তার কোন পূর্বাভাস দেখা যাচ্ছে না। আহবায়ক কমিটি গঠনের পর আগের ওই অবস্থার কোন পরিবর্তন হয়নি। সব ভেদাভেদ ও মতবিরোধ দুর করে দলকে নতুন করে চাঙ্গা করার কথা বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের মুখে শোনা গেলেও সৈয়দপুর বিএনপির চরম বিরোধ কাটিয়ে ওঠার যে পূর্বাভাস তৈরি হয়ছিল তা বাস্তবায়নে সংশয় দেখা দিয়েছে। এদিকে বিএনপির একটি ঘনিষ্ট সূত্র জানায়, বিরোধ ও দ্বিধাবিভক্ত দলকে একত্রিত করার জন্যই আহবায়ক কমিটি গঠনে দীর্ঘ সময় নেওয়া হয়েছে। এমনকি বিরোধ অবসান ও দলে ফেরার জন্য  গোপনে যোগাযোগ হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি।
আহবায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য গজনাফর আলী মিন্টু জানান, আগামী একমাসের মধ্যে আমরা পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করব। ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি গঠনের কাজ শুরু হয়েছে। দীর্ঘদিন দলের বাইরে থাকা নেতাকর্মীদের নতুন কমিটিতে নেওয়া হচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, তাদেরকে নতুন কমিটিতে নেওয়া হচ্ছে না। কেননা বিগত দিনে তারা আন্দোলন ও নির্বাচন কোনটিই দলের সাথে ছিলেন না।
এ ব্যাপারে বিএনপি নেতা সাবেক পৌর কাউন্সিলর শাহীন আকতার জানান, আহবায়ক কমিটি গঠনের ব্যাপারে স্থানীয় নেতারা আমাদের কিছুই জানাননি। এ ব্যাপারে আমরা আমাদের অবস্থান কেন্দ্রকে অবগত করেছি। নতুন কমিটিতে যদি আপনার স্থান না হয় তবে আপনি আপনার পদে বহাল থাকবেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যে ঘোষণা দিবেন তা আমরা মাথা পেতে নেব।
সদ্য বহিস্কৃত হওয়ায় বিএনপি নেতা আশরাফুল হক বাবু জানান, নতুন আহবায়ক কমিটি সম্বন্ধে তিনি কিছুই জানেন না। কমিটিতে আপনার নাম নেই বা পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে আপনার নাম থাকবে কিনা এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।
তবে দ্বিধাবিভক্ত সৈয়দপুর জেলা বিএনপিকে একত্রিত করার যে উপযুক্ত সময় ও পরিবেশ নতুন কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে তৈরি হয়েছে তা হাতছাড়া হলে সামনের দিনগুলোতে বিশেষ করে নির্বাচনে বিপর্যয়ের সম্ভাবনা থেকেই যাবে বলে মত সংশিষ্টদের।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ