• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন |

সোহ্‌রাওয়ার্দী উদ্যানে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ

Dorson-12ঢাকা: বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ করেছেন প্রেমিক ও তার বন্ধুরা। সোমবার গভীর রাতে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এই ঘটনা ঘটে। ধর্ষণের শিকার তরুণীটি এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এই ঘটনায় ধর্ষিত তরুণী শাহবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। তবে পুলিশ এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। সূত্র থেকে জানা যায়, দুই সপ্তাহ আগে নাঈম নামে এক তরুণের সঙ্গে সোহ্‌রাওয়ার্দী উদ্যানেই পরিচয় ঘটে ওই তরুণীর। পরে উভয়ের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তারা বেশ কয়েকবার উদ্যানের বিভিন্ন স্থানে দেখা করেন। সর্বশেষ সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ওই তরুণীকে উদ্যানের  ডেকে আনেন প্রেমিক নাঈম। এরপর আড্ডা আর খোশগল্পের মাধ্যমে বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটান। পরে রাত ১০টায় শাহীন, ইমরান, হাবিব নামে আরও ছয়-সাতজন যুবক নাঈমের বন্ধু পরিচয়ে তাদের আড্ডায় যোগ দেয়। নাঈম তাদের বিয়ের সাক্ষী বলে ওই তরুণীর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। এরপর রাত সাড়ে ১১টার দিকে জাতীয় তিন নেতার মাজারের পিছনের আনসার ক্যাম্পের পাশে ওই তরুণীকে ছুরির মুখে জিম্মি করে গণধর্ষণ করেন নাঈম ও তার বন্ধুরা। রাতেই টহলরত পুলিশ ধর্ষিত তরুণীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে শাহবাগ থানায় নিয়ে আসে। পুলিশ চিকিৎসার জন্য ধর্ষিতাকে ঢাকা মেডিকেলে প্রেরণ করেন। এদিকে মঙ্গলবার সকালে ধর্ষিতা তরুণী বাদী হয়ে নারী ও শিশু আইনে নাঈমকে প্রধান আসামি করে শাহীন, রুবেল, ইমরান, হাবিবসহ ৬-৭জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই তরুণী নিজেকে ‘গিরি শংকর’ নামে একটি পত্রিকার সাংবাদিক বলে পরিচয় দিয়েছেন। তার বাড়ি শরীয়তপুর। থাকেন পুরান ঢাকার  নাজিরাবাজারে। এ বিষয়ে শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম বলেন, মেয়েটি স্বামী পরিত্যক্তা। উদ্যানেই ধর্ষক প্রেমিক নাঈমের সঙ্গে পরিচয় ঘটে। ঘটনায় মামলা হওয়ার কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, মেয়েটি নাঈমের পুরো ঠিকানাও জানে না। তারপরও আমরা আসামিদের ধরার চেষ্টা করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ