• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১:০৫ পূর্বাহ্ন |

হিলি স্থলবন্দর বন্ধ : সোমবার সকাল সন্ধা হরতাল

Hili solko-03হিলি প্রতিনিধি:  তিন দফা দাবী আদায়ের লক্ষ্যে রোববার পঞ্চম দিনেও আমদানি-রপ্তানি বন্ধ রেখেছে হিলি স্থলবন্দরের আন্দোলনকারী ব্যবসায়ীরা।
এদিকে সোমবার সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দিয়েছে আন্দোলনকারীরা। হরতাল চলাকালে হিলি স্থলবন্দর এলাকাসহ হাকিমপুর উপজেলায় সকল প্রকার যানবাহন চলাচল, দোকানপাট, স্কুল কলেজ, ব্যাংক, বীমা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাদের এ আন্দোলন  অব্যাহত থাকবে। রোববার হিলি চারমাথা মোড়ে রাস্তা অবরোধ রেখে এক সমাবেশে আন্দোলনকারীরা এ ঘোষনা দিয়েছে।
হিলি সিএন্ডএফ এজেন্টএসোসিয়েশনের সভাপতি আবুল কাসেম আজাদের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন-কাঁচামাল আমদানীকারক গ্রুপের আহবায়ক হারুনুর রশীদ, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লিয়াকত আলী, ব্যবসায়ী জামিল হোসেন চলন্ত, মুশফিকুর রহমান, হানিফ লস্করসহ সর্বদলীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিজিবি’র হয়রানীর শিকার হয়ে ব্যবসায়ীরা ব্যবসা গুটিয়ে নিয়েছে হিলি স্থলবন্দর থেকে।  এ আন্দোলনের ফলে হিলি পানামা পোর্টে পণ্য খালাসের অপেক্ষায় আটকে গেছে শতাধিক ভারতীয় পণ্য বোঝাই ট্রাক। দেশে প্রবেশের অপেক্ষায় ওপার সীমান্তেও আটকা পড়েছে প্রায় দেড় হাজার পন্য বোঝাই ট্রাক ।
ভারত হিলি এক্সপোটার এন্ড কিয়ারিং এজেন্টস এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক অশোক মন্ডল সীমান্তের জিরো পয়েন্টে জানিয়েছেন, কাঁচাপন্যগুলো ইতিমধ্যে গরমে নষ্ট হতে শুরু করেছে।
এদিকে হিলি স্থলবন্দরের আন্দোলনকারী ব্যবসায়ীদের সাথে একাত্বতা ঘোষনা করেছেন  জয়পুরহাট ও দিনাজপুর জেলার আমদানি-রপ্তানি কারক ব্যবসায়ীরা।
হিলি কাষ্টমস রাজস্ব কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান চৌধুরী জানান, গেল অর্থ বছরে ৫৪ কোটি টাকার স্থলে রাজস্ব আয় হয়েছিল  চার গুন ২৩৮ কোটি ৭৭ লক্ষ টাকা। চলতি অর্থ বছরের লক্ষ্যমাত্রা ১৮৬ কোটি  ১০ লক্ষ টাকা নির্ধারন করা হলেও গত ১০ মাসে রাজস্ব আয় হয়েছে মাত্র ১৫১ কোটি ৭৮ লক্ষ টাকা। ব্যবসায়ীদের হরতাল অব্যাহত থাকলে চলতি অর্থবছরে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হবেন এমনি আশংখা প্রকাশ করেছেন ওই রাজস্ব কর্মকর্তা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ