• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৩:২৬ পূর্বাহ্ন |

হিলি স্থলবন্দরের কার্যক্রম স্বাভাবিক

Castom Picআকতার হোসেন বকুল, হিলি:  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্বাসের প্রেক্ষিতে আন্দোলনকারীরা বৃহস্পতিবার দিনাজপুরের হাকিমপুরের হিলি স্থলবন্দরের অনির্দিষ্টকালের জন্য ডাকা কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। ফলে ৭ দিন বন্ধ থাকার পর ফের বন্দরটির কর্মচাঞ্চল্য ফিরে পেয়েছে। আন্দোলনটিতে নেতৃত্বদানকারী সংগঠন বাংলাহিলি কাষ্টমস্ সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশন কার্যালয়ে সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শাহিনুর রেজা শাহীন বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষনা দেন।
সাংবাদিক সম্মেলনটিতে তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী বুধবার রাতে ঢাকায় স্থানীয় (দিনাজপুর-৬ আসনের) এমপি শিবলী সাদিককের নিকট হিলি স্থলবন্দরের চলমান সংকটির বিষয়ে জানতে চান। এসময় তিনি আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে তাঁদের দেয়া ৩ দফা দাবীগুলি আদায়ের লক্ষ্যে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি ঘোষনা করার বিষয়ে অবগত  করেন, এরপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী আগামী দু’সপ্তাহের মধ্য আন্দোলনকারীদের ঘোষিত দাবীগুলি মেনে নেয়ার বিষয়ে বিবেচনার আশ্বাস প্রদান করেন। পাশাপাশি আগামীকাল (আজ বৃহস্পতিবার) তাঁদের গৃহিত কর্মসূচীগুলি প্রত্যাহার করে নিয়ে বন্দরেরর আমদানী-রপ্তানি কার্যক্রম চালু করার পরামর্শ প্রদান করেন। এরপ্রেক্ষিতে এমপি শিবলী সাদিক বুধবার রাতেই মোঠুফোনে এই সংবাদটি  বাংলাহিলি কাষ্টমস্ সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আবুল কাশেম আজাদের নিকট জানিয়ে দেন। এর পেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীর  প্রস্তাবটির প্রতি সম্মান জানিয়ে তাঁরা তাঁদের দেয়া কর্মসূচীগুলি প্রত্যাহার করে নেন। ফলে বন্দরটি ফের সচল হয়ে ওঠে।
প্রসঙ্গত, ভারত থেকে আমদানীকৃত পণ্য হিলি স্থলবন্দরে প্রবেশের প্রাক্কালে সীমান্তে ভারতীয় ট্রাকের চালান (ম্যানুফেস্টে)’র অপর পৃষ্টায় কাষ্টমস্ বিধি বর্হিভুত উপায়ে বিজিবি কর্তৃক সীল মারার  প্রতিবাদে এবং ৩ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে গত ১৪মে থেকে অনিদিষ্ট কালের জন্য এ বন্দর পথে ভারতের সঙ্গে আমদানী-রপ্তানি বন্ধের ডাক দেন। ফলে বন্দরটি অচল হয়ে পরে। এ ঘটনায় গত ১৯ ও ২০ মে হিলিতে সকাল-সন্ধ্যা সর্বাত্মক হরতাল পালিত হয়েছে। বন্দরটি অচল হয়ে পরায় প্রতিদিন সরকার গড়ে প্রায় ১ কোটি টাকা রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হয়েছে বলে হিলি কাষ্টমস্ সূত্রে জানাগেছে। আন্দোলনকারীদের ৩ দফাদাবীগুলির মধ্য রয়েছে, বিজিবি কর্তৃক ম্যানুফেষ্টে সীলমারা বন্ধ করা, বিজিবি জয়পুরহাট-৩ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে. কর্ণেল আ.রাজ্জাক তরফদারের অবিলম্বে অপসারন এবং আমদানীকৃত পণ্য হিলি স্থলবন্দর থেকে খালাসেরপর অন্যত্র নিয়ে যাবার প্রাক্কালে পথিমধ্য বিজিবি কর্তৃক ট্রাকবোঝাই পণ্যগুলি আমদানী কারক ও সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট কে না জানিয়ে হয়রানী ও মিথ্যা মামলা দায়ের বন্ধ করা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ