• সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :
পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলা বায়েজিদ আটক নীলফামারী জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের শ্বশুড়ের ইন্তেকাল সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের গ্রন্থাগারের মূল্যবান বইপত্র গোপনে বিক্রি ফেনসিডিলসহ সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেপ্তার এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতে রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকবে ৮ দিন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিন: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যেতে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা সৈয়দপুরে বিস্কুট দেয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ গণমানুষের সমর্থনেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

পানির ন্যায্য হিস্যা আদায়ে জাতিসংঘে যাবে বিএনপি

Hapizঢাকা: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন বলেছেন, ভারত যে বাংলাদেশকে পানি দেয় না এটা আন্তর্জাতিক আইনের লংঘন। বিএনপি যদি ক্ষমতায় আসে প্রয়োজনে জাতিসংঘের কাছে যাবে। পানির ন্যায্য হিস্যা আদায় করবে। শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে স্বাধীনতা ফোরাম আয়োজিত ‘বাংলাদেশের পানির ন্যায্য অধিকার : ভারতের নতুন সরকারের কাছে প্রত্যাশা’ শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, পানির অধিকার হল মানবাধিকার। ভারত বাংলাদেশের মানুষকে এই মানবাধিকার থেকে বঞ্চিত করছে। বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষ জাগলে ভারতের মানুষ সুখে থাকবে না। বিএনপির এই নেতা বলেন, বাংলাদেশের নদীগুলোর উৎস ভারতে নয়। অধিকাংশ নদীর উৎস চীন ও নেপালের হিমালয়ে। অথচ ভারত অবৈধ্য ও একতরফাভাবে বিভিন্ন নদীর মোহনায় বাধ নির্মাণ করেছে। যে কারণে আমাদের দেশের প্রায় ২০টি নদী শুকিয়ে গেছে। আমরা ভারতের তীব্র পানি আগ্রাসনের শিকার ।বাংলাদেশেকে পানির ন্যায্য হিস্যা প্রদানের বিরুদ্ধে ভারতের সকল সরকার এক। তারা সহজে আমাদের পানি দেবে না। যে কারণে তাদের কাছ থেকে পানি আদায় করে নিতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা অর্থনৈতিক দিকে দিয়ে অনেক শক্তিশালী। কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকারের অব্যাহত দুর্নীতির কারণে আমরা পিছিয়ে রয়েছি। মোদি সরকার ক্ষমতায় আসায় বিএনপি উল্লসিতও নয় আনন্দিতও নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, মোদি সরকার হিন্দু জাতীয়তাবাদি সরকার। তার দলের সংবিধানের উল্লেখ আছে ভারত একটা হিন্দু প্রধান দেশ। এই দেশে হিন্দুরা ছাড়া আর কারো বসবাস করার অধিকার নেই। এই রকম একটা কট্টর পন্থি দল ক্ষমতায় আসায় আমাদের কি করার দরকার সেটাও আমাদের ভাবতে হবে। ভারতের নতুন সরকার নরেন্দ্র মোদিকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, এই বাংলার মানুষ ঐক্যবদ্ধ। এখানে শত্রু বাড়াবেন না। ন্যায্য হিস্যা আমাদের প্রদান করবেন। ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনের মধ্যেমে আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হত তবে ভারতের কংগ্রেসের যে অবস্থা হয়েছে বাংলাদেশের আওয়ামী লীগের ও সেই অবস্থা হত।

আমরা আর লাশ হতে চাইনা স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি চাই উল্লেখ করে তিনি বলেন, সারাদেশকে আজ খুন-গুমের স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছে। এই খুনিরা হয় কোনো মন্ত্রীর জামাই, না হয় ছেলে অথবা আত্মীয়। তারা নিজেরাই এই হত্যাকাণ্ডগুলো ঘটিয়ে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর দোষ চাপানোর চেষ্টা চালাচ্ছে। গোল টিবিল আলোচনায় অ্যধাপক ড. পিয়াস করিম বলেন, ৫ জানুয়ারীর নজীরবিহীন নির্বাচনের যে সরকার পতিষ্ঠিত হয়েছে। সেই সরকার ভারতের কংগ্রেসের সমার্থন না পেলে গঠন করা সম্ভব হতো না। তিনি বলেন, মোদি বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের গুণগত পরিবর্তন আনবেন সেটা ভাবার সময় এখনও আসেনি। তবে আমাদের চেষ্টা চালাতে হবে তাদের সঙ্গে কুটনৈতিক সম্পর্ক বাড়ানোর। তবে নতজানু হয়ে না। সংগঠনের সভাপতি আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতউল্লাহ সাভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ট শামসুজ্জামান দুদু, স্থায়ী কমিটির সদস্য অ্যাড. আবেদ রেজা, ডাকসুর সাবেক জিএস খায়রুল কবির খোকন, যুবদল সহ-সভাপতি ফারুখ আহমদ প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ