• সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :
পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলা বায়েজিদ আটক নীলফামারী জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের শ্বশুড়ের ইন্তেকাল সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের গ্রন্থাগারের মূল্যবান বইপত্র গোপনে বিক্রি ফেনসিডিলসহ সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেপ্তার এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতে রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকবে ৮ দিন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিন: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যেতে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা সৈয়দপুরে বিস্কুট দেয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ গণমানুষের সমর্থনেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

সৈয়দপুরে বিষাক্ত কেমিক্যালে পাকানো আম ও লিচুতে সয়লাব

Aam+Lichu - Copyএম আর মহসিন, সিসিনিউজ: বিষাক্ত কেমিক্যালে পাকানো আম ও লিচুতে সয়লাব সৈয়দপুরের বাজার। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আমদানি করে স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে মোকাম ব্যবসায়ীর মাধ্যমে সরবরাহ হচ্ছে উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন বাজারে। এতে গাছ মালিক, মধ্যস্বত্বভোগী ও কমিশনভোগীরা এ ফলজ মৌসুমে লাভ গুনলেও ক্রেতা সাধারণরা এসকল ফল খেয়ে ধীরে ধীরে মরণব্যাধি ও জটিল রোগের দিকে ধাবিত হচ্ছে বলে মনে করছেন চিকিৎসকরা।
শনিবার সকালে সৈয়দপুর শহরের লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজ রোডে গিয়ে দেখা যায়, দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে পিকআপে বহনকৃত আম আনলোড করছে ব্যবসায়ীরা। আর এ রোডে রয়েছে ১৫টি ফলের মোকাম। ২টি মোকাম ছাড়া সকলে বর্তমান আম ও লিচুর আমদানির ব্যবসা করছে এ মোকামগুলোতে। মধ্যস্বত্ব ব্যবসায়ী এনামুল জানান, আমরা কৃষক কিংবা গাছ মালিকদের কাছ থেকে এ ফলগুলো নিয়ে থাকি। মৌসুমের প্রথমেই দর বেশি পাওয়ায় আধা পাকা কিংবা রংহীন ফলে কৌশলে কিছুটা কেমিক্যাল ব্যবহার করি। তবে সেটা ক্ষতিকর নয়। এ ব্যবসায়ী কেমিক্যালের তিকর দিক না জানলেও শহরের তামান্না সিনেমা মোড়ে একটি কীটনাশক দোকানে গিয়ে কথা হয় আ. সালাম নামে এক বিক্রেতার সাথে। তিনি জানান, কৃষি অধিদপ্তরের নির্দেশনা মতে পিজিআর নামে একটি বিষাক্ত তরল গাছের ফল, ফুলের সুষম বিকাশ ও অধিক ফলনে কৃষকরা গাছে এটি ব্যবহার করেন। তবে ফল দ্রুত পাকাতে এবং নির্দিষ্ট ফলের নির্দিষ্ট উজ্জল রং আনতে অপব্যবহার করছেন গাছ মালিকসহ ব্যবসায়ীরা।
এ সকল জটিল ও মরণব্যাধি রোগের কথা না ভেবে মধ্যস্বত্ত্ব ব্যবসায়ী ও গাছ মালিকরা ফল পেড়েই তাতে এ বিষ স্প্রে করে সরবরাহ করছে দেশব্যাপি। শহরের মদিনা ফল ভান্ডার এর কমিশন ব্যবসায়ী ফারুক জানান, প্রতিদিন ট্রেনে খুলনা, যশোর থেকে লিচু আর সাতরিা, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আম আসছে। স্থানীয় চাহিদা মেটানোর পর প্রতিদিন দেড় থেকে ২ হাজার মণ লিচু ও আম উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন বাজারে যায়। ক্ষেত্রে আমরা শুধু কমিশনটুকুই পাই। কেমিক্যাল মিশ্রিত এ সকল ফল গত সপ্তাহ আগে পরিবহন ধর্মঘটে দুই দিনেই পচে গিয়েছিল। তাই মধ্যস্বত্ত্ব ব্যবসায়ীরা খুবই সতর্ক। যাতে কোন ফল অবিক্রিত না থাকে। সৈয়দপুর শহরের বিভিন্ন ভ্রাম্যমাণ ফল দোকানে দেখা যায় সিদুরে লাল আর হলুদ রংয়ের মিশ্রণের ফলের দোকানগুলোতে চলছে উপচেপড়া ভীড়। অথচ স্থানীয় কোন ফলই এখন আসেনি বাজারে। কৃত্রিম রংয়ে রঙিন এ সকল আম ও লিচু খেলে জটিল রোগে আক্রান্ত হবে কখনো ভাবেন না এ সকল অসাধু ব্যবসায়ীরা। তবে সচেতন মহল মনে করছেন সংশ্লিষ্ট কৃষি বিভাগ, মান নিয়ন্ত্রণ পর্যবেক দলসহ স্থানীয় প্রশাসনের নিয়মিত এ ফলের বাজারে পরিদর্শন থাকলে অবশ্যই রক্ষা পাবে ক্রেতা সাধারণ।Aam+Lichu
সৈয়দপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা হুমায়রা মন্ডল জানান, ইথিফন জাতীয় তরল হরমোনটি গাছের ফল ও ফুলের সমস্যার ক্ষেত্রে ব্যবহারে পরামর্শ দেয়া হয়। আর এটি ব্যবহারে ১০ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে কোন ফল ভণ করা যাবে না। তবে এটি বিষাক্ত একটি তরল যা মানবদেহের জন্য তিকর। মুনাফা লোভী ব্যবসায়ীসহ গাছ মালিকরা মানুষের ক্ষতির কথা না ভেবে এটি ব্যবহার করে মৌসুমী ফল বাজারজাত করছেন।
এতে মানবদেহে মরণ ব্যাধিসহ দুরারোগ্য ব্যাধি ছড়াতে পারে বলে জানান, সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের আরএমও ডা. মো. সিরাজুল ইসলাম। তিনি আরো বলেন, কৃষিেেত্র ব্যবহৃত যেকোন কেমিক্যালই মানুষের জন্য তিকর। তাই এ সকল কেমিক্যাল মিশ্রিত ফল সরাসরি পেটে গেলে লিভার সিরোসিস, কিডনি ড্যামেজ ও পাকস্থলীর ক্যান্সার ছাড়াও দীর্ঘ মেয়াদি জটিল রোগ হতে পারে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ