• রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৫:০৫ পূর্বাহ্ন |

৭ নেতার ওপর চটেছেন তারেক

Tareqসিসিনিউজ ডেস্ক: মন্ত্রণালয় ভিত্তিক, প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের সদস্য এবং আত্মীয় স্বজনের দুর্নীতির তথ্য সংগ্রহের জন্য দলের শীর্ষ ৭ নেতাকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এই দায়িত্ব দেওয়ার এক বছরেও দায়িত্বপ্রাপ্তরা কোনো কাজই করেননি। তাই তাদের ওপর চটেছেন তারেক রহমান।

দলটির একটি ঘনিষ্ঠ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ২০১৩ সালের মধ্যবর্তী সময়ে দলের মহাসচিব ,স্থায়ী কমিটির সদস্য, ভাইস-চেয়ারম্যান ও আমলা উপদেষ্টাদের মধ্যে সাতজনকে এই দায়িত্ব দেওয়া হয়।

তথ্য সংগ্রহের সমন্বয়ের দায়িত্ব ছিল বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক একজন কেবিনেট সচিবের ওপর।
দায়িত্বপ্রাপ্তরা এক বছরে শুধু পত্রিকার কাটিং থেকে পাওয়া তথ্য ছাড়া তারেক রহমানের হাতে আর কিছুই তুলে দিতে পারেননি।

এমনকি আন্দোলন করতে গিয়ে আহত, নিহত, পঙ্গু, গুম, অপহরণ ও মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তারের সঠিক তালিকাটিও তারেক রহমান দলের নেতাদের কাছ থেকে পাননি।

দলটির তিনজন যুগ্ম মহাসচিব ও মধ্যম সারির ২ থেকে ৩জন নেতা শুধু পত্রিকার রিপোটিংয়ের কাটিং সংগ্রহ করেই তাদের দায়িত্ব শেষ করছেন বলে লন্ডনে অবস্থানরত তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ এক সাংবাদিক জানান। তাদের নিজেদের মধ্যেও তথ্য সংগ্রহের জন্য কোনো সমন্বয় ছিল না।

দলীয় নেতারা এই কাজ না করায় ঘটনাটিকে তারেক রহমানের দেওয়া দায়িত্বকে উপেক্ষা করা হয়েছে বলেই মনে করছেন বিএনপিতে তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ এক নেতা। এটা দল ও দলের নেতৃত্বেকে অবঞ্চা করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এ কারণে লন্ডনে অবস্থানরত সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান দলটির মহাসচিবসহ দায়িত্বশীল ওইসব নেতাদের ওপর ক্ষুব্ধ হয়েছেন বলে জানান লন্ডনে অবস্থানরত তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র।

নিজের নির্দেশ বাস্তবায়িত না হওয়ায় চলতি বছরের প্রথম দিকে নিজস্ব একটি টিম গঠন করেন তারেক রহমান। এই টিমের তালিকায় নাম ছিল সাংবাদিক, পেশাজীবী ছাড়াও চাকরিরত কয়েকজন তরুণ আমলা।

এ ব্যাপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলের একজন স্থায়ী কমিটির সদস্য বাংলানিউজকে বলেন, কেউ দুনীর্তি করে তা সামাল দিচ্ছে, কেউ পিঠ বাচাঁতে ঘরমুখী হচ্ছে, কেউবা সরকারের সঙ্গে হাত মিলিয়ে সময় পার করছে। এরা সরকারের দুনীঁতির তালিকা করবে কখন, বলেন তিনি।

ক্ষুদ্ধ কণ্ঠে তিনি বলেন, দল ক্ষমতায় আসলে এমনিতেই এরা মন্ত্রী হবেন, কষ্ট করে লাভ কি, বলেন এই নেতা।

তারেক রহমানের নির্দেশনা কেন বাস্তবায়ন হয়নি দলটির দায়িত্বশীল এক যুগ্ম মহাসচিবের কাছে জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

উৎসঃ   বাংলানিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ