• মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৩:৫১ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :

তারেক হুশের পাগল : খাদ্যমন্ত্রী

Kamrulঢাকা : বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সমালোচনা করে খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, সে একজন ফেরারী আসামী, একটি হুশের পাগল, একটি বেয়াদব। আইএসআই এর ইন্ধনে সে এসব কথা বলছে। তার মত বেয়াদব ও অর্বাচিন বালক নিয়ে আর কোনো কথা বলতে চাই না। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক রাজনীতি ও মৌলবাদের উত্থান জিয়াউর রহমানের অবদান। তিনি গোলাম আযমকে বাংলাদেশে আনার ব্যবস্থা করেছেন। আমরা দীর্ঘ ২১ বছর জিয়া ও বিএনপির দুর্দান্ত প্রতাপ দেখেছি।

সময়মত জামায়াতের বিরুদ্ধে সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে এবং এর জন্য জনগণকে অপেক্ষা করতে আহবান জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম। রবিবার দুপুরে গণগ্রন্থাগার মিলনায়তনে ‘এশিয়ান জার্নালিষ্ট হিউম্যান রাইটস এ্যান্ড কালচারাল ফাউন্ডেশন (এজাহিকাফ)’ আয়োজিত চলমান রাজনীতির আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, আজকে জামায়াতের বিচার নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেন। বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার চেষ্টা করছেন। আইনমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন, আইনের যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন সেটা সঠিক ব্যাখ্যা দিয়েছেন। ঠিক সময়ে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হবে। সময়ে বলে দেবে কোন কাজটা কোন সময়ে করতে হবে। অতি বিপ্লবী বা অতি উৎসাহী হওয়ার সুযোগ নেই। আমরা আমাদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।

জামায়াত প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জামায়াত পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের লবিস্ট নিয়োগ দিয়েছিল যুদ্ধাপরাধীর বিচার বানচালের জন্য। কিন্তু তারা সফল হয়নি। তারা ট্রাইব্যুনালকেও প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু এই ট্রাইব্যুনাল থেকেই যুদ্ধাপরাধীদের সবগুলো রায় দেওয়া হয়েছে এবং একটি কার্যকরও করা হয়েছে। আশা করি এই সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়েই বাকি রায়গুলো কার্যকর করা হবে।
গণজাগরণ মঞ্চের লোকেরা সরকারকে ভুল বুঝছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি গণজাগরণ মঞ্চের লোকদের স্যালুট জানাই। তারা সঠিক সময়ে একটি আন্দোলন সৃষ্টি করেছে। তবে, তারা সরকারকে ভুল বুঝছে। সরকার জামায়াতের সঙ্গে কোনো রকম আতাত করে নাই। আমরা সঠিক সময়ে সঠিক কাজটি করতে চাই। অপেক্ষা করুনম ধৈয্য ধরুন। আমি এ সময়ে এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে চাই না।

তিনি বলেন, আমাদের মাঝে ভুল বুঝাবুঝির জন্য বিভ্রান্তি সৃষ্টি হবে। নিজেদের মাঝে অনৈক্য সৃষ্টি হবে। অযথা আন্দোলনের কথা বলবেন না। আমরা মুক্তিযোদ্ধাদের অনৈক্যের সুযোগ নিয়ে বিরোধীদের সুযোগ নিতে দেব না। কবি আবদুল খালেক এর সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ