• সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০:১৩ পূর্বাহ্ন |

ফিফা বিশ্বকাপ: ব্রাজিলে প্রস্তুত ১০ লাখ যৌনকর্মী

Sexখেলাধুলা ডেস্ক: আগামী ১২ জুন থেকে ব্রাজিলে শুরু হবে ফিফা বিশ্বকাপের ২০ তম আসর। এ উপলক্ষে দেশটি ইতোমধ্যে রঙিন সাজে সেজেছে। সেইসাথে পর্যটকদের টার্গেট করে প্রস্তুত নিতে শুরু করেছে দশ লাখেরও বেশি যৌনকর্মী।
বিভিন্ন হোটেল ও রাস্তার মোড়ে মোড়ে পর্যটকদের অভ্যর্থনা জানাতে অপেক্ষা করবেন তারা। সেইসাথে দেহব্যবসার কাজও সেরে নেবেন তারা। সবমিলিয়ে দারুণ একটি উৎসবের সাক্ষী হয়ে থাকবে ব্রাজিল। তবে ইতোমধ্যেই যৌনকর্মীদের রাস্তার মোড়ে মোড়ে দেখা মিলতে শুরু করেছে।
নামি দামি পর্যটকদের আকর্ষণে বা তাদের মনোরঞ্জনের ক্ষেত্রে যোগাযোগে যাতে কোনো রকম সমস্যা না হয় সে জন্য যৌনকর্মীদের ইংরেজি ভাষা থেকে শুরু করে নানা প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে যতœসহকারে। সেইসাথে তাদের ক্রেডিট কার্ডের সুযোগ সবিধাও দেয়া হচ্ছে।
ব্রাজিলে রমরমা সেক্স বাণিজ্য, প্রস্তুত ১০ লাখ যৌনকর্মী
ব্রাজিলের বেলো হরাইজোন্টে শহরে মোট ২৩ টি পতিতালয় রয়েছে। তবে এসব পতিতালয়ের পতিতারা কম বেশি খদ্দেরের অপেক্ষায় ঘরের বাইরে রাস্তার মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকবে। এ ব্যাপারে পরিকল্পনা প্রায় পাকা করা হয়েছে। বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে রোদের মধ্যে দাঁড়িয়ে দীর্ঘ সময় খদ্দেরের জন্য অপেক্ষায় থাকতেও তাদের কোনো মানা নেই। আবার অনেকে বিভিন্ন দোকান পাটের মধ্যে সরু জায়গায় খরিদ্দারের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাবে।
তবে অভিযোগ রয়েছে, অনেকে ইচ্ছার বিরুদ্ধেও যৌন ব্যবসায় লিপ্ত আছে বলে জানা গেছে। উপযুক্ত কাজ না পাওয়ায় পরিবারের জন্যে উপার্জন করতে রাতে সন্তান ঘুমিয়ে রেখেও কেউ কেউ যৌন ব্যবসা নেমে পড়েছে বা পড়ার উপক্রম হয়েছে। এতে যা উপার্জন হয় তা থেকে আবার বিভিন্ন খাতে কমিশন দিয়ে নিজের যা থাকে তা দিয়ে সংসার চালানো অনেক কঠিন হয়ে পড়ে।
ব্রাজিলে রমরমা সেক্স বাণিজ্য, প্রস্তুত ১০ লাখ যৌনকর্মী
খেলা শুরু হওয়ার পর এ ব্যবসা জমজমাট হয়ে উঠবে বলে মনে করা হচ্ছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ব্রাজিলে যৌনকর্মীদের দিনকাল বেশ কিছু দিন ধরে ভালো যাচ্ছিল না। তবে বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে তারা সুদে আসলে উসুল করে নেয়ার পরিকল্পনা পাকা করে নিয়েছে। অনেক পতিতা আছেন যারা বিশ্বকাপের আগেও সাধারণ সময়ে নাইটক্লাবে প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করেন। তাদের জন্যে এবার অর্থ উপার্জনের সুযোগ আরো বেড়ে যাবে। বিদেশীদের কাছ থেকে তারা এবার বেশি পরিমাণে দাম হাঁকাবেন।
গত ২০০০ সালে ব্রাজিলে যৌন ব্যবসা বৈধ ঘোষণা করা হয়। দেশটিতে যৌন ব্যবসা করতে এ পর্যন্ত অনেক নারীকে জীবন দিতে হয়েছে। বর্তমানে দেশটিতে অনেকে যৌন ব্যবসাকেই প্রধান পেশা হিসেবে বেছে নেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ