• শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০২:১৯ পূর্বাহ্ন |

স্কাইপেতে চ্যাট করে শিম্পাঞ্জি!

Sispanjiআন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বের সবচেয়ে চালাক শিম্পাঞ্জি কাঞ্জির বসবাস যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়া অঙ্গরাজ্যে। ৩৩ বছর বয়সী কাঞ্জির মধ্যে বেশ কিছু মানবীয় বৈশিষ্ট্য রয়েছে। মানুষের মুখের ভাষা বোঝা, রান্না, গান শোনা ও কম্পিউটার ব্যবহারেও সিদ্ধহস্ত এই প্রাণীটি। এমনকি স্কাইপেতে অনেকের সঙ্গে ভিডিও চ্যাটও করে। মানুষকে দেখে দেখেই এই গুণগুলো রপ্ত করেছে কাঞ্জি।

মুখ দিয়ে কোনো অর্থবোধক শব্দ উচ্চারণ করতে না পারলেও কাঞ্জির শব্দের ভাণ্ডার বেশ সমৃদ্ধ। ৩ হাজারের মতো শব্দ জানা আছে তার, এর মধ্যে ৫০০ শব্দ ব্যবহার করতে পারে। বাকিগুলো শুধু বুঝতে পারে। মানবশিশুর মতো নিজ মায়ের কাছ থেকে এই শব্দগুলো শিখেছে কাঞ্জি। এই শব্দগুলো ব্যবহার করেই মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ করে। আর এ জন্য ব্যবহার করে একটি কম্পিউটার। টাচ স্ক্রিন মনিটরে ৪০০ প্রতীক রয়েছে। খাবারের নাম থেকে শুরু করে সুখ ও দুঃখের অনুভূতিও তার মধ্যে রয়েছে। যে কোনো প্রতীকে চাপ দিলে কম্পিউটারের স্পিকার তা আমেরিকান ইংরেজিতে বলে দেয়। নিজে কথা বলতে না পারলেও মানুষের কথা শুনে ঠিকই উত্তর দিতে পারে কাঞ্জি। প্রশ্ন করলে নিজের কম্পিউটার ব্যবহার করে তার উত্তর দেয়। পছন্দের খাবারের নাম জানতে চাইলে উত্তর দেয় তার প্রিয় খাবার ডিমের অমলেট।
এখানেই শেষ নয়: ডিমের অমলেট রান্নাও করতে পারে কাঞ্জি। অমলেট বানানোর জন্য নিজ হাতে খড়কুটো সংগ্রহ করে। তারপর দিয়াশলাই দিয়ে  আগুন জ্বালিয়ে ডিমের অমলেট তৈরি করে। রান্না ছাড়াও খাওয়ার আদব কেতাও আয়ত্ত করে ফেলেছে কাঞ্জি। খুব সুন্দরভাবে টেবিলে বসে খায়। খাওয়ার সময় কোনো কিছুই নোংরা করে না।
টেকো নামের চার বছর বয়সী একটি ছেলেও রয়েছে কাঞ্জির। বাপের মতো ছেলেটিও খুব চতুর। সম্প্রতি ছেলের জন্মদিনের আয়োজন করে কাঞ্জি। ফু দিয়ে মোমবাতি নেভানো ছাড়াও ছেলের পছন্দের খাবারের আয়োজন করে। এছাড়াও নানা রঙের বেলুন ওড়ানোর ব্যবস্থা ছিল। আর এসবের শেষে বাপ-ছেলে মিলে কিছুক্ষণের জন্য ডিভিডিতে বেশ কয়েকটা অনুষ্ঠানও দেখার ব্যবস্থা করে কাঞ্জি।

কাঞ্জির জন্ম জর্জিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে। সেখানে গবেষকদের তত্ত্বাবধানে বেশ নিরাপদে থাকলেও এই প্রজাতির শিম্পাঞ্জিদের অস্তিত্ব এখন হুমকির মুখে। শুধু আফ্রিকার দেশ কঙ্গোতেই এদের দেখা মেলে। সেখানেও অবৈধ শিকারি আর প্রাকৃতিক বন ধ্বংসের কারণে হুমকির মুখে পড়েছে এই প্রাণীগুলো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ