• শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:০৯ অপরাহ্ন |

শ্বশুরবাড়ির অত্যাচারে অতিষ্ট বালিকা বধুর আত্মহত্যার চেষ্টা

80947_1সিসিনিউজ ডেস্ক: মুন্সীগঞ্জে রুমি আক্তার নামে এগার বছরের বালিকা বধু শ্বশুরবাড়ির অত্যাচার সইতে না পেরে ধলেশ্বরী নদীতে ঝাপিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে।
মুন্সীগঞ্জ লঞ্চঘাটের কাছাকাছি ট্রলার থেকে ঝাপ দেয়ার পরে ট্রলারে থাকা লোকজন তাকে উদ্ধার করে।
চার মাস আগে চাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী রুমির সাথে মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ি উপজেলার জশলং গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে আবু বক্কের শেখের সাথে বিয়ে হয়। আবু বক্কের ঢাকার মিডফোর্ডে দর্জির কাজ করে।
রুমি আক্তার সাংবাদিকদের জানায়, বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে আসার পর থেকে প্রতিদিনই অত্যাচার করে আসছে স্বামী, শ্বশুর- শ্বাশুড়ি থেকে ননদ পর্যন্ত। ৪ মাসে বকাঝকা না খেয়ে একদিনও ঘুমানো সম্ভব হয়নি। গায়ে হাত দেয়া থেকে শুরু করে সবসময় মানসিকভাবে অত্যাচার করেছে তারা।
রুমি বলে, “এ বাড়ি থেকে বেরুনোর সুযোগ খুঁজছিলাম আমি। গত সপ্তাহে ঢাকায় বড় বোনের বাড়িতে গিয়ে আর মুন্সীগঞ্জে ফিরবো না বলে দেই, কিন্তু আমার বড় বোন জোর করে তাদের সাথে পাঠায়। রওনা হওয়ার সাথে সাথে মনে মনে প্রতিজ্ঞা করি সুযোগ পেলেই নদীতে ঝাপ দেবো, মরে যাবো”।
মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান, ঘটনার পর রুমির শ্বশুর এবং ননদ তাকে মারধোর করার চেষ্টা করলে এলাকাবাসী তাদের আটক করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। তাদের থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
রুমি আক্তার চাঁদপুরের পশ্চিম নলডুগী গ্রামের কৃষক সহিদ ভূঁইয়ার মেয়ে।
পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা করা হয়নি, মেয়ের বাবাকে খবর দেয়া হয়েছে। সে আসলে মামলা প্রস্তুত করা হবে।

উৎসঃ   এটিএন টাইমস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ