• শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৫৯ অপরাহ্ন |

বিরামপুরে আদিবাসীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার অভিযোগ

Afzal Photoফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার পার্শ্ববর্তী বুকচি গ্রামের আদিবাসীদের উপর মতিন হেমরম (৫০) মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। প্রতিবাদে রবিবার বুকচীগ্রামের আদিবাসী মিফায়েল টুডু, লাজারুস মুর্মু, পিতফাতুস হেমরম, লাজারুস মুর্মু,গহিতানহেমরম,আইরেন মার্ডী সহ বেশকিছু আদিবাসীরা ফুলবড়ী থানা প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলন করেন।
সাংবাদিক সম্মেলনে মিফায়েল টুডু বলেন মতিন হেমরম একজন মাদক বিক্রেতা ও মাদক পানকারী। সে এলাকার পরিবেশ নষ্ট করছে। তার এইসব অবৈধ কার্যক্রম বন্ধ করার জন্য আমরা আদিবাসীরা একত্রে প্রতিবাদ করলে সে আমাদের বিরুদ্ধে আদালতে হয়রানি করার জন্য মিথ্যা মামলা দায়ের করে। আমরা সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে বুকচীগ্রামের শ্রী মতিন হেমরনের  হয়রানি থেকে বাচতে চাই ও মিথ্যা দায়েরকৃত মামলার তদন্ত সাপেক্ষে ন্যায় বিচারের দাবি করছি। মতিন হেমরম এলাকার একজন মামলাবাজ এবং মাদক তৈরীর হোতা। সে মাদক তৈরী করে বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করে এবং নিজে পান করেন ও আদিবাসীদের ছেলে মেয়েদেরকে জোর করে খাইয়ে তাদের ভবিষ্যৎ জীবন নষ্ট করছেন।এই নিয়ে গত ২০/০৪/২০১৪ইং তারিখে মদ তৈরী ও বন্ধকল্পে বিরামপুর উপজেলার ৩নং খানপুর ইউ.পির চেয়ারম্যানের নিকট যুবদলের সভাপতি আয়রেনিয়াস মার্ডি ও নাগরিক পরিষদের কয়েকজন মিলে অভিযোগ দেয়া হয়। ইউ.পি চেয়ারম্যান মোঃ ইয়াকুব আলী বিষয়টি তদন্ত করে গত ৪/৫/১৪ইং তারিখে ইউনিয়ন অফিসে স্থানীয় লোকজন ইউ.পি সদস্যদের নিয়ে এক রেজুলেশন করে চোয়ানি তৈরী ও মদ পান বন্ধ করেন। মতিন হেমরম মাতাল অবস্থায় ওই এলাকায় সমাজে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করছে। গত ২৩/৪/১৪ইং তারিখে ১২ জনকে আসামী করে প্রথম শ্রেণীর জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত-৫, বিরামপুর, দিনাজপুর এ মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং ৪৫সি১৪। মতিন হেমরমের বাড়ী বুকচী গ্রামে এবং যাদেরকে আসামী করা হয়েছে তাদের বাড়ী একই গ্রামে। মিথ্যা চুরি ও মারপিটের মামলা করে আমাদেরকে হয়রানি  করছে। আমরা সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে ন্যায় বিচারের দাবি করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ