• সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন |

সুনামগঞ্জে সেই শিক্ষিকা বরখাস্ত : মামলা দায়ের

mamlaসিসিনিউজ: সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার  ইব্রাহিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর শিথর্ক্ষীদের পৈশাচিক ভাবে নির্যাতনকারি শিক্ষিকা দীপা রাণী দাসকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। রবিবার সন্ধ্যায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে শিক্ষিকার বিরুদ্ধে এ আদেশ দেয়া হয়।
গত বুধবার বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা ওই শিক্ষিকার দেয়া অংক বাসা থেকে করে (হোম-ওয়ার্ক) না আনায় তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের হাতে সেলুনের পরিত্যাক্ত ব্লেড ধরিয়ে হাত-পায়ে ব্লেডের পোচ  দিতে বাধ্য করেন। এতে ২০-২৫জন শিক্ষার্থী বাধ্য হয়ে এই ব্লেড দিয়ে হাত পায়ে পোচ দিয়ে রক্তাক্ত হয়। অমানবিক এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের অবিভাবকরা জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে এ ঘটনার প্রাথমিক তদন্তে  তার (শিক্ষিকার)  বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তাকে এ বহিষ্কারাদেশ দেয়া হয়েছে।
প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, অবিভাবকদের করা অভিযোগের ভিত্তিতে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার নির্দেশে গত শনিবার সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল বাশার মৃধা ঘটনাস্থলে যান এবং বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, পরিচালনা কমিটির সদস্য এবং এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলেন। এ বিষয়ে খোঁজ-খবর নিয়ে তিনি অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পান।
এ তদন্তের ভিত্তিতে রবিবার বিকেলে তিনি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার বরাবরে প্রতিবেদন জমা দিয়ে ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়েরের প্রস্তাব দেন। তদন্ত প্রতিবেদর ও সুপারিশের ভিত্তিতে রবিবার সন্ধ্যায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে শিক্ষিকা দীপা রাণী দাসকে সাময়িক বরখাস্ত আদেশ দেয়া হয়েছে।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নূরুল ইসলাম বলেন, তদন্তে সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় ওই শিক্ষিকাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ