• সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন |

বোচাগঞ্জে বিজিবি’র মামলায় ৪ গ্রাম পুরুষ শূন্য

mamlaমাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর: দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার ছাতইল ইউনিয়নের পরমেশ্বপুর বিওপি ক্যাম্পের হাবিলদার যোবায়দুর রহমানসহ পরমেশ্বপুর বিওপি ক্যাম্পের কয়েকজন বিজিবি সদস্যর উপর হামলা ও সরকারী কাজে বাধাদানের অভিযোগে বোচাগঞ্জ থানায় মামলা করার পর থেকে সীমান্তবর্তী  তেতরা, পাঁচপাড়া, লক্ষিপুর ও পরমেশ্বপুর  গ্রাম এখন পুরুষ শূন্য। চরম আতংকে দিন কাটাচ্ছেন গ্রামবাসী।
বোচাগঞ্জ থানায় মামলা সুত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন ৩০ মে সন্ধ্যা আনুমানিক রাত ১০টার সময় বোচাগঞ্জ উপজেলার পরমেশ্বপুর বিওপি ক্যাম্পের বিজিবি হাবিলদার যোবায়দুর রহমান সঙ্গীয় ল্যান্স নায়েক মোঃ রফিকুল ইসলামসহ পরমেশ্বপুর পাঁচপাড়া এলাকায় চোরাচালান প্রতিরোধ ও টহল ডিউটি চলাকালীন তেতরা মোড় হতে পাঁচপাড়া বাজার মধ্যবর্তী রাস্তার ব্রীজের উপর সন্দেহভাজন একটি মোটরসাইকেল আটক করেন। ফপটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করলে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল ইসলাম উত্তেজিত হয়ে বিজিবির সদস্যদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ এবং সরকারী কাজে বাধার সৃষ্টি করেন।
এ ঘটনার ইউপি সদস্য সফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে মোঃ হাবিবুর রহমান, মোঃ বাবুল মিয়া, আব্দুর রউফ, মাইনুল ইসলাম, মোঃ শাহজাহান আলী, মোঃ আসাদুল, মোঃ মাইনুল ইসলামসহ ৭০/৮০ জন মানুষ পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দলবদ্ধ হয়ে বিজিবির টহল সদস্যদের উপর চড়াও হয় এবং মারপিট করে। এই ঘটনার পর দিন পরমেশ্বপুর বিওপি ক্যাম্প হাবিলদার যোবায়দুর রহমান বাদী হয়ে উপরোক্ত আসামীদের নামসহ আশপাশের ৪টি গ্রামের ৭০/৮০ জন মানুষকে অজ্ঞাত আসামী করে বোচাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং- ৭ তাং-৩১-০৫-২০১৪।
এদিকে মামলা দায়েরের পর থেকেই আসামী ধরতে পুলিশের তৎপরতা বেড়ে যাওয়ায় সীমান্তঘেষা তেতরা, লক্ষীপুর, পরমেশ্বপুর ও পাঁচপাড়া গ্রামের মানুষের মাঝে গ্রেফতার আতংক দেখা দেয়। গ্রেফতার এড়াতে ও আতংকে ৪টি গ্রাম এখন পুরুষ শূন্য হয়ে পড়েছে।  এদিকে ঘটনাস্থল সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, পরশ্বেরপুর বিওপি ক্যাম্প হাবিলদার যোবায়দুর রহমান উক্ত ক্যাম্পে হাবিলদার হিসেবে যোগদান করার পর থেকেই তার বিভিন্ন অনৈতিক কার্যকলাপে এলাকার মানুষ অতীষ্ঠ। তিনি রাতের বেলায় টহলের নামে সাধারন নিরিহ পথচারীদের বিভিন্নভাবে হয়রানী করে থাকেন। এ ব্যাপারে ঘটনার দিন এলাকার মানুষ ইউপি সদস্য সফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে স্থানীয় সংসদ সদস্যের নিকট হাবিলদার যোবায়দুর রহমানের এসব কর্মকান্ডের বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন। এরই সুত্র ধরে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে মামলা সাজিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ নিরিহ সাধারন গ্রামবাসীদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে এলাকাবাসী ধারনা করছেন।
এ ব্যাপারে বোচাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফরহাদ হাসান চৌধুরী ইগলু জানান, সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে মামলাটি দেখতে হবে এবং এলাকার কোন নিরিহ মানুষ যেন হয়রানীর স্বীকার না হয় প্রশাসনকে সেটা নিশ্চিত করতে হবে। ৫নং ছাতইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খাদেমুন্নবী চৌধুরী বাদল জানান, এই এলাকার মানুষ শান্তিপ্রিয়। অতীতে কখনো এই এলাকার মানুষের সাথে বিজিবির সম্পর্ক খারাপ ধারনা হয়নি। এলাকার মানুষ বিভিন্ন সময়ে বিজিবিকে সহায়তা করেছে। কিন্তুু একটি অনাকাংখিত ঘটনায় এলাকার মানুষ এখন চরম আতংকিত। তিনি অহেতুক নিরিহ কোন মানুষকে হয়রানী না করতে প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান, সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে কেউ দোষী প্রমানিত হলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে নিরিহ মানুষ যেন হয়রানী না হয় সেটি নিশ্চিত করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ