• সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৫৮ পূর্বাহ্ন |

দূতিয়ালির খোঁজে তারেক রহমান

Tareqসিসিনিউজ: বাংলাদেশে সকল দলের অংশ গ্রহণমূলক মধ্যবর্তী নির্বাচনের মাধ্যমে সত্যিকারের গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য ইউরোপিয় ইউনিয়নের হস্তক্ষেপ চেয়ে লবিং শুরু করেছেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। মিডিয়েটর হিসেবে ইইউ কিভাবে এ ব্যাপারে ভূমিকা রাখবে তারও একটা গাইডলাইন তৈরি করেছেন তিনি।

স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, ইউরোপিয় ইউনিয়নের সাউথ এশিয়ান গ্রুপ চেয়ার জিন ল্যামবার্টের সঙ্গে সম্প্রতি সাক্ষাত করেছেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের স্পেশাল এ্যাডভাইজার হুমায়ূন কবিরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল। তারা এখনই বাংলাদেশে একটি অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে সকলের অংশ গ্রহণে প্রতিনিধিত্বশীল সরকার গঠণের জোরালো দাবী তুলে ধরেন ল্যামবার্টের কাছে।

তারেক রহমানের পরামর্শক্রমে প্রতিনিধিদলটি বাংলাদেশে সকল দলের অংশ গ্রহণমূলক নির্বাচনের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক সরকার গঠণের লক্ষে মিডিয়েটর হিসেবে ইইউ কিভাবে উদ্যোগ নিতে পারে তার একটি সুস্পষ্ট রূপরেখা তুলে ধরে। জিন ল্যামবার্ট প্রতিনিধি দলের বক্তব্য অত্যন্ত আগ্রহ ভরে শোনেন এবং প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহন ও সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

খোঁজ নিয়ে আরো জানা গেছে, বেশ কিছুদিন থেকে বিএনপি বহির্বিশ্ব শাখা বাংলাদেশে আওয়ামীলীগের অগণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে জোর করে ক্ষমতা কুক্ষিগত করা ও বিরোধী নেতা কর্মীদের গুম-খুন, হয়রানির প্রতিবাদ আন্তর্জাতিক জনমত গঠনের পদক্ষেপ হিসেবে ইউরোপিয় ইউনিয়নের কমিশন ও ইউরোপিয় পার্লামেন্ট মেম্বারদের সঙ্গে ব্যাপক লিয়াজো এবং দফায় দফায় বৈঠক করে চলেছে। তারই ধারাবাহিকতায় ইতিমধ্যে ইউরোপিয় ইউনিয়নের শক্তিশালী বেশ কিছু প্রতিনিধিদল ঢাকা সফর করেছেন।

বহির্বিশ্ব বিএনপির শক্তিশালী লবিষ্ট গ্রুপ ইউরোপিয় ইউনিয়নের সঙ্গেই শুধু লিয়াজো ও মিটিং নিয়েই ব্যস্ত নয়, সেই সঙ্গে নেতারা মার্কিন কংগ্রেস, ভারতীয় গণতান্ত্রিক বিভিন্ন শক্তিশালী গ্রুপ ও কমিটি এবং একই সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যেও দুতিয়ালি শুরু করেছেন এই বলে যে, বাংলাদেশের জনগণের বাক, ব্যক্তি স্বাধীনতা ও মানবাধিকার আজ ভূলুণ্ঠিত এবং এক ব্যক্তির খেয়াল খুশীর উপর সব কিছু অবরুদ্ধ। তাদের ভাষায় এই অবরুদ্ধ গণতন্ত্রকে জনগণের কাছে মুক্ত করে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্যেই তাদের আন্দোলন চলছে।

বহির্বিশ্ব বিএনপির রাজনৈতিক প্রেসার গ্রুপ তাই ইউরোপিয় ইউনিয়নকে এই ম্যাসেজ দিয়েছে যে, বাংলাদেশে এই মুহূর্তে দরকার জনগণের প্রতিনিধিত্বশীল গণতান্ত্রিক সরকার। সেজন্যে এখনই ডায়ালগের মাধ্যমে সকল দলের অংশ গ্রহণের লক্ষে অবাধ ও নিরপেক্ষ সাধারণ নির্বাচনের মাধ্যমে দ্রুত গণতান্ত্রিক সরকার গঠন করতে হবে।

আর সেই নীতিগত দাবী নিয়েই গত ২৫শে জুন বহির্বিশ্ব বিএনপির একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদল ইউরোপিয় ইউনিয়ন পার্লামেন্ট মেম্বার ও প্রভাবশালী সদস্যদের সঙ্গে ছাড়াও সাউথ এশিয়ান গ্রুপ চেয়ার জিন ল্যামবার্টের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। এ সময় নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশে শিগগির অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা নিয়ে মতবিনিময় করেন।

এ জন্য বিএনপি জিন ল্যামবার্টের কাছে যে সূত্র উপস্থাপন করেছে তাতে রয়েছে- প্রয়োজনে কমিশন নিরপেক্ষ টিমের মাধ্যমে আওয়ামীলীগের কাছ থেকে নির্বাচনী ফর্মুলা বিস্তারিত উপস্থাপনের জন্য জেনে নিতে পারে। আবার বিএনপির কাছ থেকেও নির্বাচনী ফর্মুলা জানার ব্যবস্থা করতে পারে। কমিশনের সদস্যরা উভয়ের বক্তব্য নিয়ে নিজেদের যুক্তিসঙ্গত মতামত দিতে পারেন। যাতে অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা দ্রুত করা যায়।

এতে তত্বাবধায়ক সরকারের প্রসঙ্গ উত্থাপিত হলে বিএনপির প্রতিনিধিদল জানান, এটা যেকোন নামে অভিহিত হতে পারে। তত্বাবধায়ক যে হতে হবে, এমন কোন কথা নেই। মুল বিষয় হলো নির্বাচন দ্রুত হতে হবে এবং সেটা সকল দলের অংশ গ্রহণের মধ্য দিয়ে অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে কার্যকরী গ্যারান্টিই আসল দাবী।

জিন ল্যামবার্টের সঙ্গে বৈঠকে বহির্বিশ্ব বিএনপির প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিশেষ রাজনৈতিক উপদেষ্টা হুমায়ূন কবির। অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন বেলজিয়াম বিএনপির সহসভাপতি আব্দুর রাজ্জাক সাজা মিয়া, সহসভাপতি আক্কাছ মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল হোসেন বাবু, দপ্তর সম্পাদক আলম হোসেন প্রমুখ।

উৎসঃ   রাইজিংবিডি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ