• শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৪৭ পূর্বাহ্ন |

শ্লীলতাহানির অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যানকে গণধোলাই

85862_1সিসিনিউজ: মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার দ্বারিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী মহিদুল আলম মহিদকে গণধোলাই দিয়ে হাসপাতালে পাঠিয়েছে এলাকাবাসী। রবিবার গভীর রাতে দ্বারিয়াপুর গ্রামের এক গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে এলাকাবাসী ওই চেয়ারম্যানকে গণধোলাই দেয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, উপজেলার দ্বারিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিবার রাত ১২টার দিকে একই ইউনিয়নের বাসিন্দা ও কুয়েত প্রবাসী বাড়িতে ঢুকে তার স্ত্রীকে (৩৫) ঘুম থেকে ডেকে ঘর খুলতে বাধ্য করে শয়ন কক্ষে ঢুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা ও শ্লীলতাহানি ঘটায়। এ সময় গৃহবধূর আর্তচিৎকারে পরিবার ও আশেপাশের লোকজন দ্রুত ছুটে এসে গৃহবধূকে উদ্ধার করে এবং চেয়ারম্যানকে হাতে-নাতে ধরে গণধোলাই দেয়।

সংবাদ পেয়ে শ্রীপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। অবস্থার অবনতি ঘটলে তাৎক্ষণিক তাকে মাগুরার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। মাগুরার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে দ্রুত ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তার অবস্থার এখনও কোন উন্নতি হয়নি বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

এদিকে ওই গৃহবধূ নিজে বাদী হয়ে আজ সোমবার দুপুরে শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনে উক্ত চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে শ্রীপুর থানায় মামলা করেছেন।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ্ মো. আওলাদ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মামলার আলোকে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ