• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন |

আমি ১৩ জন শিশুকে হত্যা করেছি

86071_1আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ‘আজকে আমি ১৩ জন শিশুকে হত্যা করেছি। শালার মুসলমান সব জাহান্নামে যা!’ ছবি শেয়ার করার মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে এমন একটি মন্তব্যসহ নিজের ছবি শেয়ার করেছে এক ইসরাইলি সেনা। সে ইসরাইল ডিফেন্স ফোরাম (আইডিএফ) এর সদস্য।

আইডিএফ ইঞ্জিনিয়ার কোরের সদস্য ঐ সেনার নাম ডেভিড ডি ওভাদিয়া। একটি ব্যারেট পয়েন্ট ৫০ স্নাইপার রাইফেলসহ ছবিটি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করে ডেভিড ওভাদিয়া।

ওভাদিয়া তার এই ‘আজকে আমি ১৩ জন শিশুকে হত্যা করেছি। শালার মুসলমান সব জাহান্নামে যা!’ মন্তব্যটি শেরিরি এলকাদেরি নামে এক ফিলিস্তিনির অ্যাকাউন্টে পোস্ট করে। ছবিটি সাথে সাথেই স্ক্রিন শটের মাধ্যমে তুলে রাখা হয় যাতে এটি পরবর্তীয়ে সড়িয়ে ফেললেও প্রমাণ রাখা যায়। নিজ মুখে স্বীকারোক্তি দেয়ার জন্য তাকে যুদ্ধাপরাধ সংগঠনের দায়ে অভিযুক্ত করা যাবে।

তবে এ ব্যাপারটা এখনো পরিস্কার নয় এই ব্যারেট স্নাইপার রাইফেলটি ব্যবহার করে ১৩ জন ফিলিস্তিনি শিশু হত্যা করেছেন কিনা। সাধারণত এমন রাইফেল সেরা সৈন্যদের জন্য রাখা হয়।

সে যাই হউক ওভাদিয়া নিজ মুখে ১৩ ফিলিস্তিনি শিশুকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন এবং এই স্নাইপার রাইফেল নিয়ে ছবি পোস্ট করেছেন যেটা আসলে খুবই ভয়ঙ্কর একটা চিত্র।

ওভাদিয়ার ওপর আরো তথ্য সংগ্রহ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। ওভাদিয়ার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট-এর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ফেলেছে হ্যাকার গ্রুপ ‘হ্যাকটিভিস্ট’ ও ‘অ্যানোনিমাস’। এবং তার অ্যাকাউন্টটি পুরোপুরি ডিলিট করে দিয়েছে। ‘অ্যানোনিমাস’ থেকে জানানো হয় ‘ভাল কিছুর জন্য’ মোসাদ গোয়েন্দা সংস্থার ওয়েবসাইট হ্যাক করা হয়েছে এবং ‘সাহসী আইডিএফ স্নাইপারের’ অ্যাকাউন্টও হ্যাক করা হয়েছে।

আইডিএফ স্নাইপার হচ্ছে ওভাদিয়া যে ১৩ জন শিশুকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। ১১.৩০ এর মধ্যে ইসরাইলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটও হ্যাক করা হয়েছে।

ওভাদিয়ার স্বীকারোক্তি নিয়ে বিবেকবান বিশ্বে যেন কোন শোরগোল না পড়ে যায় এ কারণে ইসরাইল সমর্থক হ্যাকাররা সক্রিয় হয়ে আছে।

সূত্র: কাউন্টার কারেন্ট নিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ