• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১:০০ পূর্বাহ্ন |

এসআইয়ের বিরুদ্ধে স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগ

Nirjatonরাজশাহী: যৌতুকের দাবিতে রাজশাহী পুলিশের ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি) শাখার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কাওসার আলী সরদারের (৪২) বিরুদ্ধে স্ত্রীকে মারধরসহ নানা নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রোববার রাজশাহী প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে কাওসারের স্ত্রী শাহিনুর বানু এ অভিযোগ করেন।

শাহিনুরের অভিযোগ, দীর্ঘ ১৮ বছর আগে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার একডালা গ্রামের বাসিন্দা এবং সিআইডির এসআই কাওছার আলী সরদার শাহিনুর বানুকে বিয়ে করেন। তাদের ১৩ বছরের একটি ছেলে ও ৬ বছরের একটি মেয়েও রয়েছে। কিন্তু গত বছরের ডিসেম্বরে নগরীর উপশহর এলাকায় বাসা ভাড়া নেয়ার পর থেকে স্ত্রী শাহিনুরকে বিভিন্ন সময়ে যৌতুকের দাবিতে মারপিট এমনকি প্রাণনাশেরও হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছেন এসআই কাওসার।

এমনিভাবে সর্বশেষ গত ১১ জুলাই দুপুরে কাওসারের ছোটভাই সোহেল রানা হিরোর (২৩) প্ররোচণায় ১ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে শাহিনুরকে মারপিট করে মারাত্মক জখম করে এবং হত্যার পর লাশ গুম করে দেয়ার হুমকি দেন।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নগরীর বোয়ালিয়া থানায় একটি অভিযোগও দায়ের করেন। পরে গত ২৯ জুলাই তা মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করা হয়।

স্ত্রী শাহিনুর অভিযোগ করে বলেন, ‘গত ২০১০ সালে আমার স্বামী পুলিশ কনস্টেবল হিসেবে কর্তব্য পালনকালে সুলতানা খানম হিরা নামে তার এক সহকর্মীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তখন তারা ঢাকা বিমান বন্দরে শুল্ক শাখায় কর্তব্যরত ছিলেন। পরে তারা চলতি বছরের ৪ এপ্রিল আমাকে না জানিয়েই বিয়ে করে। তারপর থেকে পরিকল্পিতভাবে আমার ওপর একের পর এক নির্যাতন-নিপীড়নের মাত্রা বহুগুণে বেড়ে গেছে। এমনকি গত ২ মাস থেকে আমার এবং ২ ছেলে-মেয়ের কোনো ভরণ-পোষণ দিচ্ছেন না তিনি।’

শাহিনুর জানান, কাওসারের দ্বিতীয় স্ত্রী সুলতানা খানম হিরা বর্তমানে ঢাকা ক্রাইম ইনভেস্টিকেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি) শাখায় রিসিপশনে পুলিশের এসআই হিসেবে কর্মরত। তাদের প্রেম ও বিয়ের বিষয়ে পুলিশের সিআইডি শাখায় অভিযোগ করা হয়েছে। কিন্তু ওরা দু’জনেই একই শাখায় কর্মরত থাকায় তাদের পক্ষ থেকে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীর।

এদিকে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের বিষয়টি এসআই কাওসার জানতে পেরে উল্টো তার স্ত্রী শাহিনুরের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী অভিযোগ করেন। এমনকি মামলা তুলে নিতেও শাহিনুরকে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে শাহিনুরে মা সালেহা বানু ও তার ছেলে-মেয়ে উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ