• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৪৮ অপরাহ্ন |

হাতীবান্ধা তিস্তার চরে কাবিটার বরাদ্দের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

Hatibandha-1হাসান মাহমুদ, লালমনিরহাট: লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার চর সিন্দুর্নার ১ নং ওয়ার্ডে অবহেলিত পানি বন্দী চর এলাকার মানৃুষের চলাচল করার জন্য গত অর্থবছরে একটি রাস্তা পুনঃ নির্মানের জন্য ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা বরাদ্দ প্রদান করেন। কিন্তু বরাদ্দকৃত অর্থে  রাস্তাটি পুনঃ নির্মান না হলে সিন্দুর্নার ১ নং ওয়ার্ডের জনগণ গণস্বাক্ষর করে ওই কাবিটার প্রকল্প চেয়ারম্যান সিন্দুর্ণা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের সদস্য বাবুল মিয়া ও হাতীবান্ধা উপজেলার প্রকল্প অফিসার (পিআইও) এবং প্রকল্প অফিসের পিয়নের নামে লিখিত অভিযোগ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরণ করেছেন।
লিখিত অভিযোগে প্রকাশ, আমরা নিম্ন স্বাক্ষরকারী অভিযোগ করছি যে, হাতীবান্ধা উপজেলার সিন্দুর্না ইউনিয়নের অবহেলিত এলাকা চর সিন্দুর্না ১ নং ওয়ার্ড যাহা সর্ব অবস্থায় পানি বন্দি থাকে। এলাকাটি চলাচলের অনুপযোগী । ওই এলাকায় কাবিটার ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা বরাদ্দ আসলে প্রকল্প চেয়ারম্যান সিন্দুর্ণা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের সদস্য বাবুল মিয়া প্রকল্প বাস্তাবায়ন অফিস কে ঘুষ দিয়ে প্রকল্প বস্তবায়ন না করে এ প্রকল্পের সমুদয় টাকা আত্মসাৎ করেন। এ বিষয়ে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে  অভিযোগ করলে তিনি বিষয় টি দেখবেন বলে জানান। রাস্তাটি পুনঃ নির্মান হলে চর অঞ্চলের প্রায় ১ হাজার মানুষের চলাচলের সুবিধা হবে।
অভিযোগ কপি পেয়ে গত শুক্রবার সংবাদ কর্মীরা সরজমিনে তিস্তা নদীর ৫ কিলোমিটার পথ পারি দিয়ে সিন্দুর্ণা ইউনিয়নের চর  সিন্দুর্ণা ১ নং ওয়ার্ডে গেলে প্রায় ৩ হাজার ফিট রাস্তার বিন্দু মাত্র মাটির কাজ দেখা যায়নি। জনগন কে ধামা চাপা দিতে প্রকল্প চেয়ারম্যান সিন্দুর্ণা ইউনিয়ন সদস্য বাবুল মিয়া প্রায় ১ হাজার ফিট রাস্তা ট্রাক্টর দিয়ে চাষ করে তিনি জনগনকে বোঝাতে চেয়েছেন তিনি রাস্তায় নতুন মাটির কাজ করেছেন।
চর সিন্দুর্না ১ নং ওয়ার্ডের শাহিনুর ইসলাম, আ: কুদ্দুস, মোসলেম উদ্দিন, বাবুল মিয়া,রেজাউল করিম জানায় প্রতি বছর টি আর,কাবিটাসহ বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা
আত্মসাৎ করেন ওই ইউনিয়ন সদস্য বাবুল মিয়া।
হাতীবান্ধা উপজেলা প্রকল্প ও বাস্থাবায়ন কর্মকর্তা উত্তম কুমার নন্দী জানান, প্রকল্পটি শেষ না করলে আমরা প্রকল্প চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আইন গত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। ইতিমধ্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহকারী কমিশনার (ভূমি) কে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছেন বলেছেন বলে তিনি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ