• শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৯:২১ অপরাহ্ন |

মারা গেছে সেই হনুমানটি

Naogaon_Pic 14.08আশরাফুল হক নয়ন, নওগাঁ: নওগাঁর ধামইরহাট আলতাদীঘি বনবিট কর্মকর্তার কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে মারা গেল প্রায় ৬ মাস ধরে খাঁচায় বেঁধে রাখা একটি কমন লেঙ্গর প্রজাতির হনুমান। ঘটনার পর থেকেই স্থানীয় প্রানী সেবকরা বিষয়টি গোপন করলেও রাজশাহী বিভাগীয় বন্য প্রানী সংরক্ষন কর্মকর্তা রেজাউল করিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।
তিনি সাংবাদিকদের জানান, রাতে হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পেট ফেঁপে ওঠে হনুমানটির। পরে ভোরের দিকে সেটি মারা যায়। ফুড পয়েজনিং জনিত কারনে এই ঘটনা ঘটতে পারে বলে তিনি ধারনা করছেন। এদিকে হনুমানটির মৃত্যুর কারন হিসেবে সংশ্লিষ্ট বিভাগকেই দায়ি করেছেন স্থানীয় বাসিন্দা ও প্রানী বিশেষজ্ঞরা।
ধামইরহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার হেমায়েত উদ্দিন জানান, ইতোপূর্বে প্রানীগুলোনকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়ার পরামর্শ দিলেও বন বিভাগ ও বন্য প্রানী সংরক্ষন বিভাগ সেটি আমলে নেন নি। অবহেলায় প্রানীগুলো মারা গেলে সংশ্লিষ্ট বিভাগই দায়ী থাকবেন।
এদিকে হনুমানটির মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য বিকেলে জয়পুরহাট আঞ্চলিক প্রানী গবেষনাগারে নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। প্রানীটির মৃত্যুর সঠিক কারন জানার জন্য মৃতদেহটি ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে বলে জানান কর্মকর্তারা।
উল্লেখ্য, গত মাস ছয়েক আগে আলতাদীঘি শালবনে ছেড়ে দেওয়ার জন্য দুটি হনুমান ও তিনটি বানর আনা হয়। ছেড়েও দেওয়া হয়, কিন্তু প্রানীগুলো ওই বনে চলতে পারছিল না বলে সেগুলো ছেড়ে দেওয়ার পর পরই আবার খাঁচায় বন্ধি করে বিট অফিসে রাখা হয়েছিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ