• সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন |

পাবলিক পরীক্ষায় ৩২ সেট প্রশ্ন প্রস্তুত থাকবে : শিক্ষামন্ত্রী

Minister Nurulঢাকা : দেশের পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস ঠেকাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত কাজ করবে। পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্ন প্রস্তুত থাকবে ৩২ সেট। এছাড়া প্রশ্ন ফাঁস নিয়ে ‘বিভ্রান্তি সৃষ্টি’ ও ‘মিথ্যা রটনা’র দায়ে জেল-জরিমানার বিধান আসছে।

বুধবার এ বিষয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভার পর শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান।

মন্ত্রী জানান, প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে এ সংক্রান্ত আইন সংশোধন করছে সরকার। প্রশ্ন ফাঁসকারী এবং প্রশ্ন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো ও রটনা সৃষ্টিকারীদের জেল, জরিমানা, সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার বিধানও এতে থাকছে।

পাবলিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র তৈরি, ছাপানো, বিলি এবং সংরক্ষণ প্রক্রিয়াতেও বড় ধরনের পরিবর্তন আনা হচ্ছে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, এবারের এইচএসসি পরীক্ষার শুরুতেই ঢাকা বোর্ডে প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ওঠে। একটি ক্ষেত্রে সত্যতা প্রমাণ মিলেছে স্বীকার করে ইংরেজি দ্বিতীয়পত্রের পরীক্ষা দ্বিতীয়বার নেয় বোর্ড কর্তৃপক্ষ। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা বা শিক্ষামন্ত্রী আর কোনো প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার কথা স্বীকার না করলেও ইংরেজি প্রথম পত্র, পদার্থ বিজ্ঞান, গণিত, রসায়ন বিজ্ঞানের প্রশ্নপত্রের ক্ষেত্রেও একই অভিযোগ ছিল।

এবার ঢাকা বোর্ডে কয়েকটি বিষয়ে পাসের হারেও বড় ধরনের পরিবর্তন দেখা যায়, যেসব বিষয়ের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ উঠেছিল সে বিষয়গুলোতে। তবে ওই অভিযোগ সরাসরি প্রত্যাখ্যান করে শিক্ষামন্ত্রী এর আগে বলেছিলেন, “পাসের হার নিয়ে প্রশ্ন তোলা হলে তা আধুনিক যুগের প্রশ্ন হবে না।

ব্রিফিংয়ে শিক্ষাসচিব মোহাম্মদ সাদিক, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সোহরাব হোসাইন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তাসলিমা বেগম উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া ১০ বোর্ডের চেয়ারম্যানগণ, স্বরাষ্ট্র, জনপ্রশাসন ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রতিনিধি ছাড়াও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বিভিন্ন বাহিনীর প্রতিনিধিরা এ সভায় অংশ নেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ