• শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন |

ফুলবাড়ীতে ২ হাজার পরিবার পানিবন্দি

Fulbari News =28ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: গত এক সপ্তাহের বৃষ্টি ও উজানের পাহাড়ী ঢলে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বিভিন্ন স্থানের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এদিকে ধরলায় পানি বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে ভাঙ্গন তীব্র আকার ধারন করেছে। উপজেলার ধরলা, নীলকুমর, বারোমাসি নদীর পানি বৃদ্ধি পাওযায় বন্যার পরিস্থিতি অবনতি হয়েছে। ফলে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হওয়ায় শত শত একর আবাদীজমি পানির নীচে তলিয়ে গেছে। উপজেলার শিমুল বাড়ী ইউনিয়নের সোনাইকাজি, চর যতীন্দ্রনারায়ণ, বড়ভিটা ইউনিয়নের পূর্ব ধনিরাম, পশ্চিম ধনিরাম,চড়ম্যাকলি,চড় বড়লই, ভাঙ্গামোড় ইউনিয়নের রাঙ্গামাটি,খোচাবাড়ী গ্রামের সহ¯্রাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে অতি কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। এলাকা বাসির অভিযোগ সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত তারা কোন সাহায্য সহযোগিতা পাননি।
হতাশার শুরে সোনাইকাজি এলাকার শহিদুল ইসলাম,এরশাদুল হক, মোসলেম উদ্দিন জানান, “উজানের পানির জন্যে হামার শয় শয় একর জমির ধান পানির নীচোত তলে গেছে। বাচ্চা কাচ্চা নিয়া কিভাবে বাছমো বাহে”।
শিমুলবাড়ী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম মিয়া সোহেল জানান , তার ইউনিয়নে পানি বন্দি রয়েছে ৫৫০টি পরিবার। ক্ষতি গ্রস্থ পরিবার গুলোর জন্য পর্যাপ্ত ত্রান তৎপরতা প্রয়োজন।
উপজেলা ত্রান ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আঃ হাই সরকার  বলেন , ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের সংঙ্গে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রাখছি। ধরলার পানি বৃদ্ধি পেলেও ভোর রাত থেকে পানি কমতে শুরু করেছে। উপজেলা প্রশাসন এ পর্যন্ত ফুলবাড়ী উপজেলায় বন্যার্ত দুস্থ পানি বন্দি মানুষের জন্য ২৫ মেঃ টঃ চাল, নগদ ১৫ হাজার টাকা এবং কিছু চিড়াগুড় বিতরণ করা হয়েছে ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ