• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১:০৮ পূর্বাহ্ন |

ভাষা সৈনিক মতিনের অবস্থা অপরিবর্তিত

1408371396-e1408425244786ঢাকা: ভাষা সৈনিক আব্দুল মতিনের শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি। তবে মাঝে মাঝে তিনি নড়াচড়া করছেন। কিন্তু কাউকে চিনতে পারছেন না।

রোববার ভাষা সৈনিক মতিনের শারীরিক অবস্থা জানতে চাইলে এ কথা বলেন অ্যানেসথেসিয়া বিভাগীয় প্রধান এবং মেডিকেল বোর্ডের সদস্য ডা. আব্দুল হাই ।

তিনি বলেন, ‘অচেতন অবস্থায় তিনি প্রায় ১১ দিন রয়েছেন। তার অবস্থার কোনো পরিবর্তন নেই। অস্ত্রোপচারের পর থেকে এখন পর্যন্ত কোনো বড় ধরনের পরিবর্তন আমরা লক্ষ্য করিনি। তবে স্পর্শ করলে তিনি বুঝতে পারছেন বলে মনে হয়।’

এ চিকিৎসক আরো বলেন, ‘প্রথম যে অবস্থায় আমরা তাকে পেয়েছিলাম তার চেয়ে তিনি এখন অনেক ভালো আছেন। তবে এ ধরনের রোগীদের সেরে উঠতে সময় লাগে।’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির (পুনর্গঠিত) নেতা ভাষা সৈনিক আব্দুল মতিন গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে মোহাম্মদপুর সিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। স্ট্রোক হওয়ায় তার মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে যায়।

এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে নেয়া হয় বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ)। সেখানে গত বুধবার দুপুরে মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করে চিকিৎসকরা জমাট রক্ত সরিয়ে ফেলেন। আব্দুল মতিনের চিকিৎসার পুরো খরচ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বহন করছে।

১৯৫২ সালে সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক হিসেবে নেতৃস্থানীয় ভূমিকার জন্য তাকে ‘ভাষা মতিন’ নামেই চেনে সারা বাংলাদেশ।

মতিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন ১৯৪৫ সালে। ভাষা আন্দোলনের পর তিনি ছাত্র ইউনিয়ন গঠনে ভূমিকা রাখেন এবং পরে সংগঠনটির সভাপতি হন। এরপর তিনি কমিউনিস্ট আন্দোলনে সক্রিয় হন।

ভাষা আন্দোলন বিষয়ে তার রচিত বিভিন্ন বইয়ের মধ্যে রয়েছে ‘বাঙালি জাতির উৎস সন্ধান ও ভাষা আন্দোলন’, ‘ভাষা আন্দোলন কী এবং কেন’ এবং ‘ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস’। এছাড়া প্রকাশিত হয়েছে তার আত্মজীবনীমূলক বই ‘জীবন পথের বাঁকে বাঁকে’।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ