• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন |

চিরিরবন্দরে ফতেজংপুর ইউপি চেয়ারম্যান ৫ ঘন্টা অবরুদ্ধ

Cirirbondorচিরিরবন্দর প্রতিনিধি:  দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার ৩নং ফতেজংপুর ইউপি চেয়ারম্যান আখতার হোসেনকে ইউনিয়ন কার্যালয়ে ৫ ঘন্টা ধরে অবরুদ্ধ করে রাখে এলাকাবাসী।
জানা গেছে, উপজেলার ওই ইউনিয়নের ফেরুশা ডাঙ্গা মৌজার একটি বিলের মালিকানা নিয়ে ইউপি সদস্য এমদাদ হোসেন ও বিলের লিজ গ্রহীতা ফেরুশা ডাঙ্গা মৎজীবী সমিতির মধ্যে দীর্ঘ দিন ধরে দ্বন্দ্ব ও পাল্টাপাল্টি মামলা চলতে থাকে। এ ঘটনার জের ধরে মৎস্যজীবী সমিতির সদস্যরা এমদাদ হোসেন মেম্বারের পক্ষের (ডাঙ্গাপাড়ার) লোকদের যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ করে রাখে। এতে তাদের পার্শ্ববতী নালার উপরে বাঁশের একটি সাঁকো দিয়ে যাতায়াত শুরু করে। আহত ফেরুশা ডাঙ্গা দোলাপাড়ার আশরাফ আলী (৬৫) জানান, গতকাল রোববার রাতে মৎস্যজীবী সমিতির সদস্যরা বাঁশের সাঁকোটি আগুনে পুড়ে দেয়। পরদিন সকালে ইউপি চেয়ারম্যানকে বিষয়টি অবগত করতে এলে চেয়ারম্যান পক্ষ নিয়ে কথা বলায় তাদের সাথে বাগবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এরমধ্যে মৎস্যজীবী সমিতির ৬০-৬৫ জন সদস্য লাঠি-সোটা নিয়ে ইউপি অফিসে উপস্থিত হয় এবং মেম্বার পক্ষের লোকদের বেধরক মারপিট করে। এতে মনজের আলী (৪৫), আশরাফ আলী (৬৫), আব্দুল মালেক (৪০), জিকরুল হক (৪৫), রাকিব (১২)সহ ১৫-২০ জন গুরুতর আহত হয়। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে শত শত পুরুষ মহিলা ইউপি কার্যালয়ে এসে চেয়ারম্যানকে দীর্ঘ ৫ ঘন্টা ধরে অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে বিকেল ৫ টা ১০ মিনিটে চিরিরবন্দর থানা পুলিশের সহায়তায় ইউপি চেয়ারম্যানকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যায় এবং সমিতির দুই সদস্য নাদু মোহাম্মদ ও খলিল কে গ্রেফতার করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ