• সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :
পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলা বায়েজিদ আটক নীলফামারী জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের শ্বশুড়ের ইন্তেকাল সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের গ্রন্থাগারের মূল্যবান বইপত্র গোপনে বিক্রি ফেনসিডিলসহ সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেপ্তার এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতে রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকবে ৮ দিন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিন: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যেতে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা সৈয়দপুরে বিস্কুট দেয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ গণমানুষের সমর্থনেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

সাঈদীর আপিল রায়কে ঘিরে দেশজুড়ে রেড অ্যালার্ট জারি

16-11-13-Bogra_BGBসিসি ডেস্ক: মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর আপিল রায়কে ঘিরে দেশজুড়ে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। পুলিশ ও র্যাব ছাড়াও প্রস্তুত বিজিবি। চট্টগ্রাম ও বগুড়ায় গতকাল রাতেই বিজিবি মোতায়েন করা হয়। সূত্র জানায়, নাশকতার আশঙ্কায় রাজধানীসহ দেশজুড়ে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি। বঙ্গভবন, সুপ্রিম কোর্ট, সচিবালয়, গুলশান-বারিধারার কূটনৈতিক জোন, মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের আবাসিক এলাকা, সংসদ ভবন, জেলখানা, রমনা জাজেস কমপ্লেক্স, বিদ্যুৎ, গ্যাস, ওয়াসাসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় পুলিশ-র্যাবসহ গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সমন্বয়ে গড়ে তোলা হয়েছে কঠোর নিরাপত্তাবলয়। আদালতের নিরাপত্তায় মোতায়েন থাকবে এলিট ফোর্স সোয়াত বাহিনী। একই অবস্থা থাকবে জামায়াত অধ্যুষিত জেলা ও সব বিভাগীয় শহরে। গতকাল থেকে নেওয়া সারা দেশের এ নিরাপত্তাব্যবস্থা পরবর্তী সিদ্ধান্ত না দেওয়া পর্যন্ত বহাল থাকবে।

পুলিশের সূত্রগুলো বলছে, জামায়াত-শিবিরের নাশকতাসহ উদ্ভূত পরিস্থিতিতে যে কোনো ধরনের আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা। আগাম প্রস্তুতি হিসেবে গতকাল থেকেই পুলিশের জলকামান, গ্যাসকামান, আর্মড ভেহিক্যাল, পেপার স্প্রেসহ সব ধরনের অত্যাধুনিক সরঞ্জামসহ প্রস্তুত রাখা হয়েছে কয়েক প্লাটুন পুলিশ। যে কোনো পরিস্থিতিতে সর্বোচ্চ পাঁচ মিনিটের মধ্যে প্রস্তুত রাখা পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে পৌঁছাবে।

পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল সাঈদীর বিরুদ্ধে ফাঁসির রায় ঘোষণার পর দেশজুড়ে অরাজকতা সৃষ্টি করে জামায়াত-শিবির। সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে পুলিশসহ শতাধিক ব্যক্তি নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটে। জামায়াত অধ্যুষিত জেলাগুলো রাজধানী থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এবারও এমন আশঙ্কা করছেন গোয়েন্দারা। এ কারণে এবার আগাম প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। কোনোভাবেই রায়কে কেন্দ্র করে কোনো অরাজকতা করতে দেবে না পুলিশ। সরকারের নির্দেশনা এমনই দেওয়া আছে।

পুলিশের মহাপরিদর্শক হাসান মাহমুদ খন্দকার গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছি। যখন যে ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া দরকার, সে ধরনের ব্যবস্থা আমাদের রয়েছে।’ তিনি বলেন, সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে যে কোনো পরিস্থিতি কঠোর হাতে দমন করার জন্য পুলিশ বাহিনী প্রস্তুত।

উৎস: বাংলাদেশ প্রতিদিন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ