• সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :
পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খোলা বায়েজিদ আটক নীলফামারী জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলামের শ্বশুড়ের ইন্তেকাল সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের গ্রন্থাগারের মূল্যবান বইপত্র গোপনে বিক্রি ফেনসিডিলসহ সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেপ্তার এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতে রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকবে ৮ দিন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিন: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যেতে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা সৈয়দপুরে বিস্কুট দেয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ গণমানুষের সমর্থনেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির নামে প্রতারণার চেষ্টা : দিনাজপুরে ৩ জন গ্রেফতার

timthumb.phpসিসি ডেস্ক: পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বেকার যুবকদের প্রতারনার ফাঁদে ফেলার একটি চক্রান্ত দিনাজপুরে ফাঁস হয়ে গেছে। প্রতারক চক্রের সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগে তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, চাউলিয়াপট্রির ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স এন্ড টেকনোলোজীর শিক্ষক কসবা নিবাসী সাজেদুর ইসলাম, মহেশকোঠা গ্রাম নিবাসী আমিরুল ইসলাম এবং কাসিমপুর গ্রাম নিবাসী জাহাঙ্গীর আলম।
এগ্রিকালচার সায়েন্স এন্ড ইনফরমেশন রিসার্স ফাউন্ডেশন (এএসআইআর)  নামের একটি প্রতিষ্ঠান গত ১১ ই সেপ্টেম্বর দৈনিক ইত্তেফাক সহ স্থানিয় একটি দৈনিকে ‘জরুরী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি’ শিরোনামে একটি বিজ্ঞাপন দেয়। ওই বিজ্ঞাপনে রংপুর বিভাগের ৮ জেলায় জুনিয়র কনসালটেন্ট, প্রোগ্রাম অফিসার, ভিডিও অপারেটর, ম্যানেজার, কম্পিউটার অপারেটর, পিয়ন, ফিন্ট ট্রেইনার, সুপার ভাইজার, মাঠকর্মী সহ বিভিন্ন পদে ৩২৫৩ জনকে আকর্ষণীয় বেতনে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেয়। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী নিয়োগপ্রাপ্তদের বেতন হওয়ার কথা সর্বোচ্চ ৩০হাজার টাকা ও সর্বোনিম্ন ৮ হাজার টাকা। তাতে করে প্রতিমাসে রংপুর বিভাগের নিয়োগপ্রাপ্তদের বেতন দাড়ায় ৩কোটি ১০লাখ ৬হাজার টাকা। দরখাস্তকারীদের প্রতিজনের কাছ থেকে পদ ভেদে ১৫০ টাকা হতে ২০০ টাকা পোস্টাল অর্ডার প্রকল্প পরিচালক, আসির (এএসআইআর) ফাউন্ডেশন, ডিভিশনাল অফিস, বিমান অফিস ভবন নিচতলা (প্রেসক্লাবের বীপরিতে), কালিতলা দিনাজপুর বরাবরে পাঠাতে বলা হয়।
আকর্ষণীয় বেতনের মন ভুলানো বিজ্ঞাপন দেখে প্রতিদিন হাজার হাজার লোক দরখাস্ত পাঠাতে থাকেন। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে জনমনে সন্দেহ হলে কয়েকজন সাংবাদিক আজ বৃহস্পতিবার ওই অফিসে যান। তারা অবাক হয়ে লক্ষ করেন, যে অফিসে প্রায় সাড়ে তিন হাজারের মতো লোক নেয়া হবে বলে বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছে সেই অফিসের কোন সাইন বোর্ড সেখানে নাই। অফিসে একটি মাত্র টেবিল নিয়ে আমিরুল ইসলাম নামে এক যুবক নিজেকে এএসআইআর’র সহ ব্রাঞ্চ ম্যানেজার পরিচয় দিয়ে প্রার্থীদের দরখাস্ত জমা নিচ্ছেন।
সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান যে তার বাড়ী সদর উপজেলার মহেশকোঠা গ্রামে। তিনি এমাসেই নিয়োগ পেয়েছেন। তবে সাংবাদিকদের কোন নিয়োগ পত্র দেখাতে পারেননি। তিনি ম্যানেজার হিসেবে কসবা নিবাসী মাজেদুর ইসলামের কথা বলেন। দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আজাহারুল আজাদ জুয়েল তার সাথে মোবাইলে কথা বললে মাজেদুর নিজেকে ম্যানেজার হিসাবে পরিচয় দিতে অস্বীকার করেন। তিনি জানান, এখানে প্রকল্প ম্যানেজার হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন ওই বাড়ীর মালিক ইসতিয়াক আহমেদ। মোবাইলে ইসতিয়াক আহমেদের সাথে যোগাযোগ করা হলে ইসতিয়াক এএসআইআর’র সাথে যুক্ত থাকার কথা অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, বাড়ীর মালিক হিসাবে শুধুমাত্র ভাড়া দিয়েছি। প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান এ মাসে দিনাজপুরে এলে চুক্তি করা হবে।
ইসতিয়াক আহমেদ একথাও জানান যে, ওই প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ প্রাপ্তির জন্য তিনি নিজেও দরখাস্ত দিয়েছেন। তিনি এএসআইআর’র চেয়ারম্যান হিসেবে জনৈক হাফিজুর রহমানের কথা জানান এবং একথা বলেন যে, এএসআইআর’র অফিস মিরপুরে।
ইসতিয়াক আহমেদ মোবাইল ফোনে এই প্রতিনিধিকে বারবার বলতে থাকেন, এএসআইআর অফিসের সবাইকে বাইরে বের করেদিয়ে যেন তালা লাগানো হয়। তিনি নিজেকে এ ভূয়া প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত থাকার কথা অস্বীকার করলেও ম্যানেজার পরিচয়ের মাজেদুর ইসলাম জানান যে, তাকে ইসতিয়াক আহমেদই নিয়োগ দিয়েছে। ইসতিয়াক ব্যাক্তিগত ভাবে তার বন্ধু বলেও তিনি জানান।  এএসআইআর’র চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেন সাংবাদিকবৃন্দ। কিন্তু তার কোন মোবাইল নম্বর পাওয়া যায়নি। ফলে তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে অফিসবিহীন অফিসে নিয়োগের নামে প্রতারণার বিষয়টি সাংবাদিকদের কাছে ফাঁস হয়ার পর পুলিশে খবর দেয়া হয়। পুলিশ এসে ৩ জনকে ধরে নিয়ে যায়। সূত্র: এবিনিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ