• বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০১:৩৩ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
ইউনূস, হিলারি ও চেরি ব্লেয়ারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার দাবি সংসদে মার্কেট-শপিং মলে মাস্ক বাধ্যতামূলক করে প্রজ্ঞাপন খানসামায় র‌্যাবের অভিযান ইয়াবাসহ দুই মাদককারবারী গ্রেপ্তার ডোমার ও ডিমলায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ ১০ উদ্যোগ নিয়ে কর্মশালা নীলফামারীতে ৫ সহযোগীসহ কুখ্যাত চোর ফজল গ্রেপ্তার সৈয়দপুরে তথ্যসংগ্রহকারী ও সুপারভাইজারদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত জয়পুরহাট বিনা খরচে আইনের সেবা পেতে সেমিনার শিক্ষক লাঞ্চনা ও হেনস্তার বিরুদ্ধে সৈয়দপুরে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর প্রতিবাদ সমাবেশ সৈয়দপুরে শহীদ আমিনুল হকের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে বিনামূ‌ল্যে বীজ ও সার বিতরণ

রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিক, আট গোল রিয়ালের

image_99127_0খেলাধুলা ডেস্ক: ডার্বি হারের রাগ যেন উপচে পড়ল দেপোর্তিভোর উপর। শনিবার লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদের আগুনে ফুটবলের সামনে উড়ে গেল বিপক্ষ। তিন, চান গোল নয়। আট গোল। যে ম্যাচের ইউএসপি হয়ে থাকল ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিক। রিয়াল জিতল ৮-২ গোলে।

টানা দু’ম্যাচে হেরে প্রশ্ন উঠে গিয়েছিল, রিয়াল দলটা কি নিছকই ব্যক্তিগত প্রতিভার ওপর নির্ভর করে? নাকি রদ্রিগেজ, ক্রুজের মতো প্রতিভারা আসায় দলের ভারসাম্য নষ্ট হয়েছে? কিন্তু মাঠেই সমালোচকদের মুখ বন্ধ করলেন রোনাল্ডো-বেলরা। ২৯ মিনিট থেকে শুরু হলো গোল উৎসব। সিআর সেভেনের সৌজন্যে। যার পরেই বিতর্কিত তারকা হামেস রদ্রিগেজের চোখ ধাঁধানো গোলে ব্যবধান বাড়ায় রিয়াল। কিন্তু তাতেও সন্তুষ্ট ছিল না কার্লো আন্সেলোত্তির দল। বিরতির ঠিক আগেই রোনাল্ডো নিজের দ্বিতীয় গোল করে ৩-০ করেন।

দ্বিতীয়ার্ধেও ছবি পাল্টায় না। কোনো রিজার্ভ দলের বিরুদ্ধে  প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলার মতোই দেপোর্তিভো রক্ষণকে নাজেহাল করে কার্লো আন্সেলোত্তির দল। গ্যারেথ বেলের জোড়া গোল, রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিক– সব কিছুই ছিল মেন্যুতে। সঙ্গে কফিনে শেষ পেড়েক পুঁতে জোড়া গেল করেন জাভিয়ার হার্নান্দেজ।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বাসেল ম্যাচের আগে অনুশীলনে রোনাল্ডো-রদ্রিগেজ ঝামেলায় জড়ালেও, এদিন তার কোনো রেশ পাওয়া যায়নি ম্যাচে। বরং দুই তারকার যুগলবন্দিতে বহু সুযোগ তৈরি করে রিয়াল। ম্যাচ শেষে রিয়াল কোচ আন্সেলোত্তি আবার জানিয়ে দিলেন, আস্তে আস্তে তার দল ছন্দ ফিরে পাচ্ছে। “গত কয়েক সপ্তাহে ভালো খেলতে পারিনি আমরা। তার মানে এই নয় দলে ভালো ফুটবলার নেই। গত দুই ম্যাচে ১৩ গোল করে এখন আমার দল কিছুটা হলেও আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছে।” সদ্য আসা ফুটবলারদের মধ্যে হামেস রদ্রিগেজই সবথেকে ভালো খেলেছেন, সেই কথা জানিয়ে রিয়ালের ইতালীয় কোচ যোগ করেন, “বাসেল ম্যাচের মতো এদিনও রদ্রিগেজ খুব ভালো খেলেছে। ও খুব ভালো প্রতিভা। আশা করছি ও নিজের ফর্ম ধরে রাখবে।” এক ম্যাচ বেশি খেলে বার্সেলোনার থেকে তিন পয়েন্ট পিছিয়ে থাকলেও, আন্সেলোত্তি ভয় পাচ্ছেন না। “এই মুহূর্তে দেখতে হবে কোথায় সমস্যা হচ্ছে দলের। এখন লিগ পজিশন নিয়ে ভাবছি না,” বলছেন রিয়াল কোচ।

পাশাপাশি আবার হ্যাটট্রিক করাও যেন রোনাল্ডোর অভ্যাসে দাঁড়িয়ে গিয়েছে। এমনিতেই আগে এক মরসুমে সবথেকে বেশি হ্যাটট্রিক করার রেকর্ড ছিল সিআর সেভেনের। এদিন আবার তিন গোল করে রোনাল্ডো টুইট করেন, “দারুণ জয়। সবাই খুব ভালো খেলেছে।”

রিয়াল আবার জয়ের রাস্তায় ফিরলেও, বিতর্কের রেশ ছাড়ল না ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নদের। যার কেন্দ্রে ছিলেন সেই রদ্রিগেজই। ক্লাব প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ চমকপ্রদ ভাবে জানিয়ে দিলেন, শুধু বিশ্বকাপে রদ্রিগেজ ভালো খেলেছিলেন শুনেই তাকে সই করানোর সিদ্ধান্ত নেন রিয়াল প্রেসিডেন্ট। যে কারণে ক্লাব ছেড়ে চলে যেতে হয় অ্যাঞ্জেল দি মারিয়াকে। “আমি ব্যক্তিগত ভাবে চিনতাম না রদ্রিগেজকে। ওর খেলা দেখিওনি কোনও দিন। শুধু শুনেছিলাম ও নাকি বিশ্বকাপে খুব ভালো খেলেছে। তাই ওকে সই করার জন্য আগ্রহ দেখালাম,” বলেন পেরেজ। শুধু রদ্রিগেজই না। অ্যাঞ্জেল দি মারিয়াকে বিক্রি করা প্রসঙ্গেও পেরেজ বলেন, আর্জেন্তিনা তারকাকে চাহিদা মতো টাকা দেওয়া যেত না। “দি মারিয়া নতুন চুক্তি চেয়েছিল। কিন্তু আমরা ওর দাবি করা টাকা দিতে চাইনি। কে এলো, কে গেল তাতে কিছু যায় আসে না। রিয়াল সব সময় সেরা ক্লাব থাকবে।”-ওয়েবসাইট।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ