• বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০১:২০ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
ইউনূস, হিলারি ও চেরি ব্লেয়ারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার দাবি সংসদে মার্কেট-শপিং মলে মাস্ক বাধ্যতামূলক করে প্রজ্ঞাপন খানসামায় র‌্যাবের অভিযান ইয়াবাসহ দুই মাদককারবারী গ্রেপ্তার ডোমার ও ডিমলায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ ১০ উদ্যোগ নিয়ে কর্মশালা নীলফামারীতে ৫ সহযোগীসহ কুখ্যাত চোর ফজল গ্রেপ্তার সৈয়দপুরে তথ্যসংগ্রহকারী ও সুপারভাইজারদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত জয়পুরহাট বিনা খরচে আইনের সেবা পেতে সেমিনার শিক্ষক লাঞ্চনা ও হেনস্তার বিরুদ্ধে সৈয়দপুরে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর প্রতিবাদ সমাবেশ সৈয়দপুরে শহীদ আমিনুল হকের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে বিনামূ‌ল্যে বীজ ও সার বিতরণ

পাবনায় কুরবানির মহিষের তান্ডব, আহত ২০

76352_01পাবনা: কুরবানির জন্য আনা মহিষের তান্ডব, আহত নারীসহ কমপক্ষে ২০ জন। এরপর গুলি  করে মহিষকে আহতের পর জবাই। সে এক এলাহি কান্ড।  বিষয়টি টক অব দ্য পাবনায় পরিণত হয়।

পাবনা পৌর এলাকার দক্ষিণ রাঘবপুর এলাকার শামিম, শহীদ ও বিপ্লব তিন ভাই একসাথে কুরবানি দেয়ার জন্য ৯০ হাজার টাকা দিয়ে একটি মহিষ ঈদের কয়েক দিন আগে হাট থেকে কিনে বাড়িতে আনেন।

সোমবার ঈদের নামাজ পর বাড়ির আঙ্গিনায় সকাল সাড়ে ১০টায় দড়ি, বাঁশ আর ৮/১০ জন মিলে প্রস্তুতি নিয়েছিলেন জবাই করার জন্য। মাটিতে ফেলে দেয়ার চেষ্টা। অনেক ধস্তাধস্তি। একপর্যায়ে মহিষটি বিকট শব্দে লাফ দিয়ে উঠে দৌড়। এরপর সামনে যাকে পেয়েছে শিং দিয়ে আহত করে ছুটেছে। ঘটনাস্থলেই প্রথমে ১০ জনকে গুরুতর আহত। এর মধ্যে আব্দুল মজিদ (৪২) নামে একজনকে নাড়িভুঁড়ি বের করে ফেলে। তারপর নানা স্থানে আহত হয় আরো ১০ জন।

শত মানুষের চেষ্টার পর ও থামানো যায়নি মহিষের। মানুষ ভীত সস্ত্রস্ত হয়ে পড়ে। এ ভাবে পাবনা  শহরের বিভিন্ন এলাকা দিয়ে ছুটে চলেছে মহিষটি। কেন্দ্রীয় বাস টারমিনালে পাবনা জেলা স্কুলের ৯ম শ্রেণির ছাত্র তালহাকে গুরুতর আহত করে এখানে আব্দুল্লাহ নামে এক পথচারীকে শিং দিয়ে তুলে আছড়িয়ে গুরুতর আহত করলে তাকে আশংকাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
সর্ব শেষ শহরের পশ্চিম এলাকা হিমাইতপুর ইউনিয়নের নাজির গ্রামে গেলে সেখানে মানুষের জীবনের নিরাপত্তার কথা ভেবে এক ব্যক্তি তার বৈধ বন্দুক দিয়ে গুলি করে আহতের পর ক্ষান্ত হয় মহিষটি।

এর মাঝে নারায়নপুর এলাকা আবু বক্কারের স্ত্রী  বাছিরন নেছাকে শিং দিয়ে গুরুতর আহত  করে। বাছিরন নেছাকে পেটের নাড়ি ভুঁড়ি বের করে  ফেলে। সব মিলে মহিষের আক্রমণে আহত হয় কম পক্ষে ২০ জন। এর মধ্যে  গুরুতর ৫ জনকে পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। ৩ জনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদেরকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত অন্যদের মধ্যে রয়েছেন মো. শওকত আলী (৪২), আব্দুর রহিম, আমীর আলী, ইমান আলী।

প্রায়  ৫ ঘন্টা  এ তান্ডবের পর কুরবানি পশুর মালিক নছিমন নামের বাহনে করে বাড়িতে এনে জবাই করেন। এঘটনা পুরো পাবনা  শহর ও আশপাশ এলাকায় ব্যাপক আলোড়ন ও ভীতির সৃষ্টি করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ