• রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন |

নীলফামারীতে টাকার বিনিময়ে নতুন বই!

bookসিসি নিউজ: নীলফামারীতে সরকারের দেয়া বিনামূল্যে পাঠ্যবই বিতরনে টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে তৃনমৃল পর্যায়ে সরকারী সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের দায়িত্ববোধ নিয়ে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে।
সূত্র মতে, জেলার কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে প্রতি সেট নুতন বই বিতরনে শিক্ষার্থী প্রতি ২০০ টাকা করে নেয় সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগন। এর প্রতিবাদে দু-একটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অভিভাবক কর্তৃক অবরুদ্ধ হওয়ার ঘটনা এবং কয়েকটি বিদ্যালয়ে বই বিতরন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এমন প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে জেলার ডোমার উপজেলার বামুনিয়া কাচারী এসসি উচ্চ বিদ্যালয়, বামুনিয়া ঘোনপাড়া দাখিল মাদ্রাসা, বামুনিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও ডিমলা উপজেলার ডালিয়া দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়।
অভিভাবকদের অভিযোগে জানা যায়, সরকার বিনামুল্যে বই বিতরন করার নির্দেশ থাকার পরও উল্লেখিত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগন শিক্ষার্থীদের নিকট হতে প্রতিসেট নুতন বই দুইশত টাকা করে জোর করেই আদায় করেছে। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, সকল শিক্ষার্থীদের জিম্মি করে ২০০ টাকা করে আদায়ের বিষয়টি বাধ্য হয়ে বাড়ীতে গিয়ে অভিভাবকে বলতে হয়েছে। বই বিতরনে টাকা নেয়ার অভিযোগে ডালিয়া দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোসলেম উদ্দিনকে শিক্ষার্থী সহ এলাকার অভিভাবকরা বিক্ষোভ মিছিল করে স্কুলে অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে ডিমলা উপজেলা মাধ্যমিক কর্মকর্তা আহসান হাবীব এর হস্তক্ষেপে ও টাকা ফেরত দিয়ে তিনি ছাড়া পান।
অপরদিকে জেলার ডোমার উপজেলার বামুনিয়া কাচারী এসসি উচ্চ বিদ্যালয়, বামুনিয়া ঘোনপাড়া দাখিল মাদ্রাসা, বামুনিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বই বিতরনে প্রতি সেট ২০০ টাকা করে নেয়ার অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বই বিতরন বন্ধ করে দেয়। বামুনিয়া কাচারী এসসি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান, বামুনিয়া ঘোনপাড়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার রফিকুল ইসলাম ও বামুনিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ময়বুল আলী তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করলেও বই বিতরন বন্ধের কোন কারন সাংবাদিকদের জানাতে পারেন নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ