• মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১২:৪৮ অপরাহ্ন |

টানা অবরোধে স্থবির হিলি স্থলবন্দর

hiliহিলি প্রতিনিধি: বিএনপির ডাকা দেশব্যাপি টানা অবরোধের কারণে বিরূপ প্রভাব পড়েছে দেশের দ্বিতীয় বৃহৎ স্থলবন্দর হিলি স্থলবন্দরে। ফলে স্থবির হয়ে পড়েছে এখানকার ব্যবসা-বাণিজ্য। বন্দর দিয়ে সামান্য পরিমাণ পণ্য আমদানি হলেও অবরোধের কারণে দেশের অভ্যন্তরে পণ্য পরিবহণ করতে পারছেনা ব্যবসায়ীরা। ফলে ব্যবসায়ীরা যেমন আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে তেমনি ক্ষতির মুখে পড়েছে সরকারের রাজস্ব আদায়।
এদিকে বন্দরের আমাদনি-রফতানি স্বাভাবিক রাখতে এবং আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে বন্দরের প্রধান-পধান সড়ক গুলোতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
কাষ্টমস কর্তৃপক্ষ বলছেন, গত কয়েক দিন আগেও বন্দরটি দিয়ে প্রতিদিন প্রায় দুই শতাধিক ট্রাক ভারত থেকে পণ্য নিয়ে দেশে প্রবেশ করলেও বর্তমানে প্রবেশ করছে এসেছে ৪০ থেকে ৫০ টিতে।

হিলি স্থলবন্দর কাষ্টমস সহকারী কমিশনার মহিববুর রহমান ভূঞা জানান, পণ্য আমদানি কমে যাওয়ায় ক্ষতির মুখে পড়ছে সরকারের রাজস্ব আদায়। এভাবে অবরোধ চলতে থাকলে চলতি মাসের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করা অসম্ভব হয়ে পড়বে।
ফুলবাড়ি থেকে হিলি স্থলবন্দরে কয়লা কিনতে আসা মোস্তাফিজার রহমান ও রাজু আহাম্মেদ জানায়, অবরোধের কারণে ট্রাক মালিকরা তাদের টাক ভারা দিচ্ছে না ফলে মালামাল কিনে বন্দরেই ফেলে রাখতে হয়েছে। তারা বলেন, রাস্তায় নিরাপত্তা না থাকায় বেশি টাকা ভারা দিয়েও ট্রাক মালিকরা তাদের ট্রাক ভারা দিচ্ছে না।
এদিকে বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি কিছুটা চালু থাকলেও পণ্য পরিবহণ করতে না পারায় অর্ধেকে নেমে এসেছে বন্দরের পণ্য আমদানির পরিমাণ। অপরদিকে দেশের অভ্যন্তরে পণ্য সরবরাহ না হওয়ায় বন্দরের ওয়ার হাউজ পানামা হিলি পোর্টের অভ্যন্তরে সৃষ্টি হচ্ছে পণ্য জট।
বন্দরের বে-সরকারি অপারেটর প্রতিষ্ঠান পানামা হিলি পোর্ট লিংক লিমিটেডের সহকারী ব্যবস্থাপক এসএম হায়দার জানান, চাল, গম, ভূট্টা, খৈল, কয়লাসহ  বর্তমানে ২৪৫টি পণ্য বোঝাই ট্রাক খালাসের অপেক্ষায় আটকা পড়ে আছে। ফলে বন্দরে পণ্যজট বাড়ছে। এতে ব্যবসায়ীরা যেমন ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে তেমনি সরকার হরাচ্ছে কোটি-কোটি টাকার রাজস্ব।
বন্দরের শ্রমিকরা বলছেন, অবরোধের কারণে পণ্য পরিবহন বন্ধ থাকায় কমে গেছে বন্দরের পণ্য লোড-আনলোডের কাজ। ফলে বেকার হয়ে পড়েছে বন্দরে কর্মরত প্রায় চার শতাধিক শ্রমিক। পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন কাটাতে হচ্ছে তাদের।
বন্দরের ব্যবসায়ী সুত্রে জানাগেছে, দেশের অভ্যন্তরে পণ্য সরবরাহ বন্ধ থাকায় এবং বন্দরের ওয়ার হাউজ পানামা হিলি পোর্টের অভ্যন্তরে জায়গা সংকুলান না হওয়ায় বর্তমানে প্রতিদিন পণ্য বাহী ৫০-৬০টি ট্রাক দেশে প্রবেশ করলেও বন্দরের ওপারে ভারত অংশে পাইপ লাইলে পণ্যবাহী কয়েকশ ট্রাক দেশে প্রবেশের অপেক্ষায় আটক পড়ে আছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ