• সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৯:৫২ অপরাহ্ন |

ধন না থেকেও ধনী!

moosa bin shamsher_64339সিসি নিউজ: মুসা বিন শমশের। মিডিয়ার কল্যাণে যাকে বলা হয়ে থাকে বাংলাদেশের তথাকথিত অন্যতম ধনী। বাংলাদেশের নাগরিক হয়েও নিজের দেশে দৃশ্যমান কোনো ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বড় শিল্প কারখানা নেই। এমন কি দেশে তার ধন-সম্পত্তি কি পরিমাণ আছে তা কারো জানা নেই। তবে তিনি নিজেকে বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ধনীদের একজন দাবি করেন।
কে এই মূসা বিন শমসের। তিনি প্রথম আলোচনায় আসেন ব্রিটেনের বেশ আগের এক নির্বাচনে টাকা অনুদান ঘোষণার মাধ্যমে। কিন্তু সেই টাকা কাকে দিয়েছেন বা কে নিয়েছে সে বিষয়ে কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেননি তিনি।
বাংলাদেশ একটি গরিব রাষ্ট্র। প্রতিবছর বিদেশ থেকে ঋণ নিয়ে আমাদের চলতে হয়। সমালোচকদের মতে, মুসা বিন শমসের বাংলাদেশের কোথাও কোনো বড় ধরনের অনুদান প্রদান করেছেন তার কোনো খবর প্রচারিত হয়নি।
মুসা বিন শমসেরকে বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ও গ্রহণযোগ্য ম্যাগাজিন ফর্বসের দেয়া তথ্য অনুযায়ী এবারো বাংলাদেশের শীর্ষ ধনীদের তালিকায় এক নম্বরে রয়েছেন বলে দাবি করা হয়।
বাংলাদেশে তিনি আলোচনায় আসেন গত বছর ১৮ ডিসেম্বর। ওই দিন তিনি ৩০ জনের নিজস্ব নিরাপত্তাকর্মী নিয়ে দুদক কার্যালয়ে হাজির হন। দুদক কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে। অভিযোগ উঠেছে সুইস ব্যাংকে মুসা ৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (প্রায় ৫১ হাজার কোটি টাকা) বাংলাদেশ থেকে পাচার করেছেন। দুদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মুসা যতটা না আলোচিত বা প্রচারিত হয়েছেন তার চেয়ে বেশি তিনি আলোচিত হয়েছেন তার রাজকীয় উপস্থিতির জন্য।
সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে, ওই দিনের আগে বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ মুসা বিন শমসের চিনতো না বা জানতো না। তবে অনেকেই মনে করেন নিজেকে বাংলাদেশে পরিচিত করার জন্যই মুসা নিজ সম্পর্কে এসব প্রচার করছেন। কিন্তু বলা হয়ে থাকে মুসা বিন শমসেরকে নাকি বিশ্বের অন্যান্য দেশে প্রিন্স মুসা হিসেবে আখ্যায়িত করছে।
তাই অনেকেই রসিকতা করে মুসা বিন শমসেরকে ধন না থেকেও ধনী হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ