• রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন |

বর্ডার হাট থেকে ফিরে আসলেন ক্রেতা -বিক্রেতা

Bordar Haatআতাউর রহমান, রাজিবপুর: বালিয়ামারী বর্ডার হাট ত্যাগ করে ফিরে আসলেন বাংলাদেশী ক্রেতা ও বিক্রেতারা। বুধবার কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলার বালিয়ামারী ও ভারতের কালাইয়ের চর বর্ডার হাট বসেনি। বাংলাদেশী ক্রেতা ও বিক্রেতার অভিযোগ বর্ডার হাটে গিয়ে লাভ নেই। কারন হিসেবে জানা গেছে, বাংলাদেশী পণ্য প্লাস্টিক সামগ্রী বিক্রির অনুমতি থাকলেও ভারতের সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ )তা তাদের দেশের ক্রেতা ও বিক্রেতাদের ক্রয় করে নিতে দেয় না। অপর দিকে ভারতীয় জিরা  ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় মসলাও বাজারে আসতে বাধা ও আসলেও ১/২টি করে প্যাকেট ক্রয় করার অনুমতি দেওয়া হয় । এতে ব্যবসায়ীদের কোন প্রকার লাভ হয় না । তা ছাড়া পন্য সামগ্রী গেইট পাশের সময় বিজিবিদের নানা তালবাহানা। ফলে ব্যবসায়ীদের কোন সুযোগ-সুবিধা দেওয় হয়না । তা ছাড়া ৪/৫ জনের একটি সিন্ডিকেট প্রতি হাট বারে প্রশাসনকে  ম্যানেজ করে তারাই শুধু মালপত্র নিয়ে আসে । বাকী ক্রেতা-বিক্রেতাদের বসে অলস সময় কাটাতে হয় । ওই সমস্ত সমস্যার কারনে স্থানীয় অনুমতি প্রাপ্তরা বর্ডার হােেট যেতেও নারাজ। গত ৫ সপ্তাহ বর্ডার হাট বন্ধ থাকার কারনেও অনেক ব্যবসায় দের লোকসানের ঘানি টানতে হয়েছে। ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের  অভিযোগ  নিয়ম নীতিতে যদি বর্ডার হাট চলে, তাহলে হাট করব। আর তা নাহলে, বর্ডার হাটটি বন্ধ করে দেওয়া হোক। এ ব্যাপারে হাটে আসা তারা মিয়া,লুৎফর রহমান,বাবু মিয়া ও বাচ্চু মিয়ার সাথে কথা বললে তারা জানান,বিএসএফ শুধু তাদের সুবিধা বুঝে ,আমাদেরটা বুঝে না । তা হলে হাটে এসে লাভ কি?


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ