• রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৩:২৪ পূর্বাহ্ন |

মডেল হতে পারে কুমারপুর সোনাতোলা স্কুল

Kumarpur 14.01খন্দকার এহ্তেশাম হাবীব এমরান, পীরগঞ্জ: রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার কুমারপুর সোনাতোলা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি স্থানান্তরিত করায় ছাত্র-ছাত্রী ক্রমন্বয়ে বেড়ে চলেছে। গত ৩ বছরের তুলনায় এ বছর ওই বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রী বেড়ে দ্বিগুণে দাড়িয়েছে। সরকারী পৃষ্টপোষকতা পেলে ওই বিদ্যালয়টি মডেল বিদ্যালয় হিসেবে সুনাম অর্জন করতে পারে। জানা গেছে উপজেলা ইউনিয়নের করতোয়া নদীর কোল ঘেসে কুমারপুর নি¤œ মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি ১৯৯৩ ইং সালে প্রতিষ্ঠিত করা হয়। প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে করতোয়া নদী গ্রাস করতে থাকে আশপাশের এলাকা অব্যাহত থাকে ভাঙ্গন। এক পর্যায়ে ওই বিদ্যালয়টির জমির সিংহভাগ নদী গর্ভে বিলিন হয়ে যায়। পরবর্তীতে ওই বিদ্যালয়ে ক্লাস রুম না থাকায় খোলা আকাশের নিচে ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদান করা হতো। সেই সংঙ্গে ওই বিদ্যালয়টি বিভিন্ন সমস্যায় জরজড়িত হওয়ায় ছাত্র-ছাত্রী শূণ্য হয়ে পড়ে এ খবর বিভিন্ন পত্র পত্রিকাশ প্রকাশ হলে সরকারী কর্মকর্তাদের দৃষ্টি পড়ে বিদ্যালয়টির উপরে। পরবর্তীতে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিদ্যালয় পরিদর্শন, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দিনাজপুরসহ উর্ধতন কর্তৃপক্ষের পরিদর্শন পূর্বক বিদ্যালয়টি স্থানান্তর করার জন্য বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষকদের অনুমতি প্রদান করেন। ওই অনুমতির  প্রেক্ষিতিতে এলাকাবাসীর সহযোগীতায় বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষকগণ বিদ্যালয়টি স্থানান্তর করেন। পূর্বের যায়গা থেকে হাপ কিলোমিটার উত্তরে সোনাতোলা গ্রামে বিদ্যালয়টি শিক্ষকদের নিজিস্ব হতবিলে পাকা ঘর নির্মাণ করা হয় এবং ক্লাস পরিচালনা করা হয়। জনবহুল এ এলাকায় বিদ্যালয়টি স্থাপন করায় আশপাশের ৭-৮টি গ্রামের ছাত্র-ছাত্রীরা এ বিদ্যালয়ে লেখা পড়া সুযোগ পাচ্ছে সেই সংঙ্গে প্রতি বছরে এ বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা বেড়ে চলেছে। এ বছরে উক্ত বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রী বেড়ে দ্বিগুণে দাড়িয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা কহিনুর বেগম জানান লেখা পড়া থেকে শুরু করে সকল বিষয়ে বিদ্যালয়টি এলাকার প্রদীপ হিসেবে আলোর সৃষ্টি করেছে। উপস্থিত কয়েক জন অভিভাবক জানান বিদ্যালয়টি স্থানান্তর করে সোনাতোলায় স্থাপন করায় আশপাশের ছেলে-মেয়েরা এ বিদ্যালয়ে লেখা পড়ার সুযোগ পাচ্ছে এবং এ বিদ্যালয়ে শিক্ষক শিক্ষিকাগণ অভিজ্ঞসম্পন্ন আমাদের ছেলে-মেয়েরা থেকে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত হতে পারবে। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মাহতাব হোসেন জানান কুমারপুর থেকে বিদ্যালয়টি সোনাতোলায় স্থানান্তরিত করায় বিদ্যালয়টি পূর্বের চেয়ে অনেক ভালো অবস্থানে রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ